সল্টলেকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ টলিউড অভিনেতা

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলা ছবি ও টেলিভিশনের অভিনেতা সৈকত দাশ বর্তমানে সপরিবারে বাড়ি ছেড়ে আশ্রয় নিয়েছেন আত্মীয়র বাড়ি৷ সৈকত জানালেন,সল্টলেক সিটি সেন্টারের কাছে সিবি ব্লকে একটি ফ্ল্যাটে ২৬ বছর ধরে সপরিবারে বসবাস করছি৷ হঠাৎই ৬ জুলাই সকাল এগারোটা নাগাদ মহিলা পুলিশ-সহ প্রায় ১০০ জন পুলিশকর্মী সঙ্গে টিয়ারগ্যাস, ৫০-৬০ জন শ্রমিক, দু’জন উকিল এবং আদালতের এক কর্মী এসে বলেন ফ্ল্যাটটি খালি করে দিতে হবে৷ আমার বাবা এটা লিজ-হোল্ড পদ্ধতিতে কিনেছিলেন।

সৈকত জানান, যে ভদ্রলোকের কাছ থেকে এটা কিনেছিলেন, তিনি এখন আর বেঁচে নেই। এদিনই আমরা জানতে পারি যে, সেই ভদ্রলোকের দ্বিতীয় স্ত্রীর নামে এই ফ্ল্যাটটি। ওই ভদ্রমহিলা নাকি আমাদের নামে ২০১৬ সালে মামলা করেছেন৷ কিন্তু সেই মামলার নোটিশ আমরা কোনও দিন পাইনি৷ তা সত্বেও আমাদেরকে এই মুহূর্তেই ফ্ল্য়াটটি খালি করতে হবে।

সৈকতের কথায়, ‘‘ভয় পেয়ে আমি, আমার স্ত্রী, ছেলে, ৮১ বছরের বাবা, ৭১ বছরের অসুস্থ মাকে নিয়ে আপাতত আশ্রয় নিয়েছি শ্বশুরবাড়িতে। তড়িঘড়ি ফ্ল্যাট ছেড়ে আসায় বেশ কিছু মূল্যবান জিনিসপত্র, গয়না এবং প্রয়োজনীয় কিছু কাগজপত্রও খুঁজে পাচ্ছি না৷’’ ইতিমধ্যেই পরিবারের পক্ষ থেকে আইনি পদক্ষেপের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। সৈকতের দাবি, ‘‘আমাদের কাছে ফ্ল্যাটটি আইনসম্মত ভাবে কেনার সব কাগজপত্রই রয়েছে। তারপরও কীভাবে এই পরিস্থিতিতে পড়লাম সেটা ভাবতেই অবাক লাগছে৷ বিষয়টি আমি আর্টিস্ট ফোরামকেও জানিয়েছি৷’’

Advertisement
---