স্টাফ রিপোর্টার, দিঘা: শনি, রবি ছুটির দিন৷ পরে পাওয়া চৌদ্দ আনা সোমবারের বনধ৷ তাতেই বাজিমাত বাঙালির৷ মুখ্যমন্ত্রীর সাধের ‘গোয়া’ দিঘায় ভিড় পর্যটকদের৷

বনধ ঘোষণা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই হোটেল বুক করার হুড়োহুড়ি পড়েছিল৷ মুখে হাসি ফুটেছিল ব্যবসায়ীদের৷ প্রস্তুত ছিলেন তারা৷ শনিবার বেলা বাড়তেই দিঘায় উপচে পড়া ভিড়৷ হোটেলগুলিতে তিল ধারণের জায়গা নেই৷

Advertisement

সাধারণত সোমবার ফাঁকা থাকে সৈকত শহর দিঘা৷ কিন্তু এদিন সকালবেলার ছবিটা বেশ অন্যরকম৷ সমুদ্র সৈকতে পর্যটকদের আনাগোনা৷ ভিড় সমুদ্র পাড়ের বিভিন্ন দোকানে৷ তবে আনন্দের মাঝেই কিছুটা হতাশা৷ কারণ অমাবস্যা থাকায় জল ফেঁপে ওঠে সমুদ্রের৷ অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সমুদ্রে নামতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে প্রশাসন৷

পুলিশি নিষেধাজ্ঞা না মেনে দিঘার ক্ষনিকাঘাটে বেহালার দুজন সমুদ্রে নেমে স্নান করতে শুরু করে। পুলিশের অবশ্য নজর এড়ায়নি৷ তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ৷

বিভিন্ন কারণে রাজনৈতিক দলের সমালোচনাই দস্তুর৷ কিন্তু এদিন কংগ্রেস, বামেদের ডাকা বনধের জেরে উইকেন্ডের পরও হাসি মুখে পর্যটকরা৷

----
--