দীর্ঘ টালবাহানার পর বর্ধমানে চালু ট্রমা কেয়ার

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: দীর্ঘ টালবাহানার পর অবশেষে আনুষ্ঠানিকভাবে চালু হল পূর্ব বর্ধমান জেলার ট্রমা কেয়ার সেন্টার।

‘লেবেল টু’ এই ট্রমা কেয়ার সেন্টারে ২৪ ঘণ্টাই চিকিত্সা হবে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। সোমবার প্রায় সাড়ে ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে পূর্ব বর্ধমান জেলায় অনাময় হাসপাতালে চালু হল এই ট্রমা কেয়ার সেন্টার।

আরও পড়ুন: বাজেট অধিবেশনে ধুধুন্মার কান্ড ঘটাল শাসক-বিরোধী

- Advertisement -

এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগণার পৈলান থেকে রিমোর্ট কন্ট্রোলের সাহায্যে পূর্ব বর্ধমান জেলার এই ট্রমা কেয়ার সেন্টারের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে এদিন বর্ধমান ট্রমা কেয়ার সেন্টার ফলক উন্মোচন করেন বর্ধমান মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. সুকুমার বসাক। হাজির ছিলেন বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপার ডা. উত্পল দাঁ, ডেপুটি সুপার ডা. অমিতাভ সাহা এবং মুখ্য স্বাস্থ্যাধিকারিক ডা. প্রণব রায়। সুকুমারবাবু বলেন, ‘‘কেন্দ্রও রাজ্য সরকারের যৌথ আর্থিক সাহায্যে মোট ২০টি বেডের ২৪ ঘণ্টার এই ট্রমা কেয়ার সেন্টার চালু করা হল। আগামী দিনে এই ট্রমা কেয়ার সেন্টারকে লেবেল ওয়ান সেন্টার হিসাবে স্বীকৃতি লাভের জন্য উদ্যোগ নেওয়া হবে৷’’

আরও পড়ুন: হেলমেটহীন বাইক আরোহীকে লাড্ডু খাইয়ে নিজস্বী তুললেন পড়ুয়ারা

বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডেপুটি সুপার ডা. অমিতাভ সাহা জানিয়েছেন, সার্জারি, অ্যানাসথেসিয়া এবং অর্থোপেডিকের ৩টি ইউনিটিই থাকছে। ডাকা মাত্র হাজির হবেন নিউরো সার্জারির ইউনিট। ট্রমা কেয়ার সেণ্টারের জন্য ১০জনের একটি ডাক্তারদের কমিটি গড়া হয়েছে। থাকছে ১৯জন নার্সিং স্টাফ, ২৫জন সাফাই কর্মী এবং ২৪জন নিরাপত্তরক্ষী। খুব শীঘ্রই নিয়ে আসা হচ্ছে পোর্টেবল ভেন্টিলেটর এবং সি-এক্সরে মেশিন।

উদ্বোধনের দিনই বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ৯জন রোগীকে নিয়ে আসা হয়েছে এই ট্রমা কেয়ার সেন্টারে। ডেপুটি সুপার জানিয়েছেন, গড়ে প্রতিদিনে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রায় ৪০০ থেকে ৪৫০জন রোগী ভরতি হন। যাদের মধ্যে প্রায় ৪০জন গড়ে ট্রমায় আক্রান্ত। তিনি জানিয়েছেন, বর্ধমানের এই ট্রমা কেয়ার সেন্টার জাতীয় সড়কের হুগলির গুড়াপ থেকে গলসি পর্যন্ত দুর্ঘটনায় জখমদের এখানে নিয়ে আসা হবে।

আরও পড়ুন: রামনবমীর অস্ত্র মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, কান্দিতে ধুন্ধুমার

তিনি জানিয়েছেন, কলকাতার বাইরে পূর্ব বর্ধমান জেলাই প্রথম এই ট্রমা কেয়ার সেন্টার চালু করল। তিনি জানান, ইতিমধ্যেই হুগলির সিঙ্গুর, কলকাতার আরজিকর এবং এসএসকেএম-সহ পশ্চিম বর্ধমানের আসানসোলেও ট্রমা কেয়ার সেন্টার তৈরি করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বাম আমল থেকেই এই ট্রমা কেয়ার সেন্টার তৈরির দাবি উঠেছিল। সেই সময় জাতীয় সড়কের পাশে বর্তমান অনাময় গ্রামীণ হাসপাতাল এলাকায় এই ট্রমা সেন্টার গড়ে তোলার জন্য জমিও দান করেন বর্ধমানের এক বাসিন্দা। অবশেষে কয়েক দশকের প্রচেষ্টার পর সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে এই ট্রমা কেয়ার সেন্টার চালু হওয়ায় খুশি শহরের বাসিন্দারা৷

আরও পড়ুন: চার ধর্ষককে গ্রেফতার করে রাস্তায় হাঁটাল পুলিশ

Advertisement
---