মহিলার বুকে লাথি মারার অভিযোগ শাসকদলের নেতার বিরুদ্ধে

হায়দরাবাদ: সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরে এক মহিলাকে লাথি মারার অভিযোগ উঠল রাজ্যের শাসক দলের নেতার বিরুদ্ধে। সেই নৃশংস ঘটনার ভিডিও ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে তেলেঙ্গানা রাজ্যের ধারপল্লী এলাকায়। অভিযুক্ত ব্যক্তি ইমাদি গোপি ওই রাজ্যের শাসকদল তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির ধারপল্লি এলাকার মন্ডল সভাপতি।

সমগ্র ঘটনার সূত্রপাত হয় একটা সম্পত্তি লেনদেনকে কেন্দ্র করে। অভিযোগ মাস খানেক আগে নির্যাতিতা মহিলা ইমাদি গোপির থেকে একটা সম্পত্তি কিনেছিলেন। কিন্তু, অনেক দিন হয়ে গেলেও ওই মহিলাকে সম্পত্তি সংক্রান্ত কাগজ হস্তান্তর করেনি গোপি। এর থেকেই শুরু হয় বিবাদ।

- Advertisement -

নিজামাবাদ উত্তরের এসিপি জানিয়েছেন যে নির্যাতিতা মহিলা ইমাদি গোপির থেকে ৩৩ লক্ষ টাকা দিয়ে কিছু সম্পত্তি কিনেছিলেন। দীর্ঘদিন হয়ে গেলেও সেই সম্পত্তির কাগজ দিচ্ছিলেন না ইমাদি। উলটে আরও টাকা দাবি করেছিল সে। এবং এর জন্য ওই মহিলাকে হুমকিও দেওয়া হয়েছিল। এদিন সকালে ওই মহিলা নিজের সম্প্রদায়ের বেশ কয়েকজনকে নিয়ে ইমাদি গোপির বাড়িতে যান। সেখানে কথ কাটাকাটি থেকেই ঘটে বিপত্তি।

যদিও পুলিশের দাবি, এক তরফা কিছু হয়নি। মারামারিতে দুই পক্ষই জড়িত রয়েছে। লেনদেন নিয়ে বিতর্কের মাঝে ওই মহিলাই নাকি প্রথমে জুতো দিয়ে ইমাদি গোপকে মারে। পালটা জবাব দিতে ঐ মহিলার বুকে লাথি মারে গোপি। এরপরে ওই মহিলার সঙ্গে থাকা লোকেরা টিআরএস নেতা ইমাদি গোপি-র বাড়িতে বাড়িতে হামলা চালায়। বাড়ির প্রধান দরজা এবং আসবাব ভাঙচুর করে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ইমাদি গোপি-র বিরুদ্ধে একজন মহিলাকে লাথি মারা এবং হুমকি দেওয়ার অভিযোগ লিপিবদ্ধ হয়েছে। অন্যদিকে ওই মহিলা এবং তার অনুগামীদের বিরুদ্ধে ইমাদি গোপি-র বাড়িতে হামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছে। দু’টি পৃথক ঘটনার আলাদা মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

Advertisement
-----