স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: সহপাঠীর অমতে তাঁর অশ্লীল ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট৷ আর সেই অপমানে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হল এক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ছাত্রী৷ ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের রাণীতলা থানা এলাকার আলাইপুরের ঘটনা৷

স্থানীয় সূত্রে খবর, রাণীতলার আখরিগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ে একই সঙ্গে পড়াশোনা করত আলাইপুরের বাসিন্দা আম্বিয়া খাতুন ও তার পাশের এলাকার হাসানপুরের বাসিন্দা সুমন শেখ৷ বিদ্যালয়ের বাকি ছাত্রছাত্রীদের কথায় আম্বিয়া ও সুমন দু’জনেই ভালো বন্ধু ছিল৷

Advertisement

আরও পড়ুন: শহরে শিশুর পচাগলা দেহ উদ্ধার

অভিযোগ, গত ৩০ আগস্ট সুমন শেখ একই ক্লাসের বান্ধবী আম্বিয়ার কিছু আপত্তিকর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে৷ পৌঁছে যায় বহু মানুষের কাছে৷ এদিকে স্কুল থেকে ওই ছাত্রী শুক্রবার বাড়ি ফিরলে প্রতিবেশীরা এসে ছাত্রীর বাড়িতে গোটা ঘটনার কথা জানান৷

অন্যদিকে, বিষয়টি জানার পর ওই ছাত্রীর মা তাকে খুবই বকাবকি করে। এরপর ওই ছাত্রীর বাবা স্কুলে গিয়ে বিষয়টি জানতে চায়। আর এই সব ঘটনায় নিজে অপমানিত বোধ করে ওই ছাত্রী৷ বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ঘরের ভেতর গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয় দ্বাদশ শ্রেণীর ওই ছাত্রী।

ঘটনায় ওই ছাত্রীর সহপাঠী সুমন শেখের বিরুদ্ধে রাণীতলা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। ইতিমধ্যেই পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে সুমন শেখকে গ্রেফতার করেছি। কিন্তু ঠিক কি কারণে এই ঘটনা তা খতিয়ে দেখছে রাণীতলা থানার পুলিশ৷

----
--