স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: ফের ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির শিকার এক ব্যক্তি ও কিশোর৷ ঘটনাটি ঘটেছে তমলুক থানার পায়রাচালি গ্রামে৷ দুজনের নাম পরিচয় এখনও জানা যায়নি৷

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর চল্লিশের ওই ব্যক্তি ও বছর এগারোর কিশোরকে ইতস্ততভাবে ঘুরতে দেখে এলাকাবাসী৷ তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করায় কথার মধ্যে অসঙ্গতি পায়৷ তাতেই সন্দেহ হয় এলাকাবাসীর৷ এরপর ওই ব্যক্তিকে মারধর শুরু করে এলাকাবাসী৷ তারপর একটি গাছে বেঁধেও মারধর করতে থাকে তাঁরা৷

Advertisement

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে তমলুক থানার পুলিশ৷ উত্তেজিত জনতার হাত থেকে ওই ব্যক্তি ও কিশোরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ৷ ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের নাম পরিচয় জানার চেষ্টা করছে পুলিশ৷ পাশাপাশি এই এলাকায় তাদের আসার উদ্দেশ্য জানার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

প্রসঙ্গত, এর আগে বহুবার বিভিন্ন জায়গায় চোর সন্দেহে অনেককে গণধোলাই দেওয়া হয়েছে৷ এমনকি মারের জন্য অনেকের মৃত্যুও হয়েছে৷ দেশ জুড়ে বেড়েই চলেছে গণপ্রহারের মত ঘটনা। এই নিয়ে উত্তাল হয়েছে সংসদ৷ চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে এখন গণপ্রহারের মত ঘটনা। কিন্তু এই সচেতনতার পরও কিছুতেই ঠেকানো যাচ্ছে না গণপ্রহারের মত ঘটনা।

যদিও বিভিন্ন জেলায় পুলিশ সাধারণ মানুষকে এই নিয়ে সচেতন করার চেষ্টা করে যাচ্ছে৷ প্রচার চলছে৷ আগবাড়িয়ে কাউকে মারধর করতে বারণ করা হচ্ছে পুলিশের তরফে৷ বরং কাউকে সন্দেহ হলে, পুলিশের হাতে তুলে দিতে বলা হচ্ছে৷ তার পরও যে কাজ হচ্ছে, তার প্রমাণ পাওয়া গেল তমলুক থানার পায়রাচালি গ্রামে৷

----
--