গুপ্তধনের খোঁজ করতে গিয়ে শ্রীঘরে দুই ব্যক্তি

তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: গুপ্তধনের সন্ধানে বাড়ির ভিতরে গত কয়েক দিন ধরে চলছিল ব্যাপক খোঁড়াখুঁড়ি। কিন্তু তথাকথিত সেই গুপ্ত ধনের খোঁজ মেলার আগেই শুভবুদ্ধি সম্পন্ন গ্রামবাসীদের তৎপরতায় আপাতত শ্রীঘরে ঠাঁই হল দুই গুপ্তধন সন্ধানকারীর। ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার কোতুলপুর ব্লকের চাতরা গ্রামের বুটবাড়িতে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বেশ কয়েক দিন ধরে ওই গ্রামের রোহিত নন্দীর বাড়ির ভিতরে দু’জন লোক খোঁড়াখুঁড়ির কাজ করছিল। প্রথম দিকে সেই রকম সন্দেহ হয়নি৷ কিন্তু পরে দিনের পর দিন দু’জন অপরিচিত লোক ওই বাড়ির ভিতরে খোঁড়াখুড়ি করছে দেখে সন্দেহ হয় গ্রামবাসীদের। কৌতুহলবশত অনেকেই ওই বাড়ির ভিতরে দেখেন একটি বিশালাকার সুড়ঙ্গ কাটা হয়েছে।

আরও পড়ুন: গঙ্গাসাগরে বাজপেয়ীর অস্থি বিসর্জন দিলীপ, রাহুলের

- Advertisement -

গ্রামবাসীরা ওই দুই ব্যক্তিকে সুড়ঙ্গ কাটার কারণ জিজ্ঞাসা করে৷ তারা তখন তাঁদের জানায় পারিবারিক অশান্তি, মাটির নিচে হাড় আছে এই ধরণের অসংলগ্ন কথা বলে৷ তাদের কথা শুনে গ্রামবাসীদের আরও সন্দেহ হয়৷ তাঁরা ওই দুই ব্যক্তিকে আরও জিঞ্জাসাবাদ করতে মাটির নিচে গুপ্তধনের সন্ধান মেলার কথা বলে তারা।

এই ঘটনায় রহস্যের গন্ধ পেয়ে গ্রামবাসীরা পুলিশে খবর দেন। পুলিশ গ্রামে আসার আগেই চম্পট দেন ওই বাড়ির মালিক রোহিত নন্দী। বৃহস্পতিবার রাতেই পুলিশ মাটির কাটার কাজে যুক্ত দু’জন ব্যক্তিকে আটক করে থানায় নিয়ে গিয়েছে।

Advertisement
---