পুলিশকে পচা মাংস বিক্রি করে আটক দুই

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: ফের মিলল পচা মাংস। এবার ঘটনাস্থল বীরভূমের সিউড়ি৷ অভিযোগ, দোকান থেকে মাংস কিনে বাড়ি ফিরে রান্না করতে গিয়ে তার ভিতর থেকে বেরোল পোকা। সঙ্গে দুর্গন্ধ।

সিউড়ি থানার পুলিশ দুই মাংস ব্যবসায়ী শেখ দুলু ও শেখ গাবুকে আটক করেছে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে সিউড়ির বেনীমাধব মোড়-সহ বিভিন্ন মাছ মাংসের দোকানে অভিযান চালানো হবে।

আরও পড়ুন: ‘মমতাকে প্রধানমন্ত্রী বানাতে কংগ্রেস করি না’

- Advertisement -

ভাগাড়-কাণ্ডের পর বারবার পুরসভার পক্ষ থেকে অভিযান চালানো হলেও প্রকাশ্যেই পচা মাংস বিক্রির অভিযোগ উঠল ফের সিউড়ি শহরে। তাও তা ধরল হুগলিতে কর্মরত এক পুলিশ কর্মী৷

কল্যাণ চক্রবর্তী নামে ওই পুলিশ কর্মী স্ত্রীকে নিয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিউড়ি বেনিমাধব মোড় থেকে আড়াইশো টাকায় পাঁচশো মাংস কেনেন। কল্যাণবাবু বলেন, ‘‘পুরন্দরপুরে শ্বশুরবাড়িতে এসে রাত আটটা নাগাদ মাংস কিনতে সিউড়ি আসি। সিউড়ি থেকে ফিরেই সেটি ফ্রিজে ভরে রাখা হয়। বুধবার রান্না করতে গিয়ে দেখা যায় সেই মাংস থেকে প্রচণ্ড দুর্গন্ধ৷ সঙ্গে পোকা বেরোচ্ছে।’’

আরও পড়ুন: স্বামীজির আদর্শে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বার্তা প্রণব মুখোপাধ্যায়ের

স্ত্রী তিথি চক্রবর্তীকে নিয়েই বুধবার সকালে সিউড়িতে ফের শেখ দুলুর দোকানে হাজির হন তিনি। দুলু মাংসটি ফেরত নিয়ে টাকা ফেরত দিয়ে দেয়। তিথি দেবী দাবি করেন, ‘‘আমরা টাকা ফেরত নিয়েছি৷ কিন্তু পচা মাংস নিয়ে ফের তারা ব্যবসা করত। তাই সিউড়ি থানায় এসে দুজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জানাই।’’

যদিও শেখ দুলু স্বীকার করেন ওই মাংস তিনি বিক্রি করেছেন। সেটি ওই দিনের সকালে কাটা। কিন্তু কীভাবে এমন হল তিনি বুঝতে পারছেন না। পুলিশ তাদের ঘটনাস্থল থেকে আটক করে। শেখ দুলুর বাড়ি সিউড়ির কাটাবুনি পাড়ায়। অন্যজন ছাগল সরবরাহকারী নলহাটি থানার চাতরা গ্রামের বাসিন্দা। দুজনকে আটক করলেও সিউড়ি পুরসভার পক্ষ থেকে এখনই অভিযান চালানোর কথা বলা হয়নি।

আরও পড়ুন: ফের একসঙ্গে সৃজিত ও তাঁর ‘এক্স-ফ্লেম’?

উল্লেখ্য, গত মাসে ভাগাড়-কাণ্ডের পর সিউড়ির বেশ কয়েকটি রেস্টুরেন্টে অভিযান চালায় পুরসভা। সেখানে পচা মাংস উদ্ধার করে। তারপরে আর কোনও অভিযান চলেনি। এমনকী, তাদের ফুড লাইসেন্স করার কথা বলা হলেও সবার নেই।

পুরসভার ফুড ইন্সপেক্টর সুব্রত চক্রবর্তী বলেন, ‘‘এখনও পুরসভার পক্ষ থেকে পচা মাংস মেলার কোনও অভিযোগ আমাদের কাছে আসেনি। এলে নিশ্চয় অভিযান চালানো হবে। তবে পুরসভা না করলেও পুলিশের তরফে স্বাস্থ্য দফতরকে নিয়ে অভিযান চালানোর কথা বলা হয়েছে। বারবার এই ভাবে পচা মাংস উদ্ধারে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।’’

আরও পড়ুন: ‘তিন বছরে কাজ না করেও ঘোরার পয়সা পাচ্ছেন কোথা থেকে?’

Advertisement ---
---
-----