বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল এক স্কুলছাত্রের

স্টাফ রিপোর্টার, বারুইপুর ও বালুরঘাট: বাসের ধাক্কায় মৃত্যু হল মাত্র ছয় বছরের এক স্কুল ছাত্রের৷ নিহত শিশুর নাম আনিসুর লস্কর৷ ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বাসন্তি থানার ভাঙনখালি এলাকায়৷

অন্যদিকে ট্রাক্টরের ধাক্কায় মৃত এক মোটরবাইক আরোহী ও আহত আট বছরের শিশুকন্যা৷ ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের বংশীহারী থানার পাঞ্জারী পাড়া এলাকায়৷ মৃত ব্যক্তির নাম মহিরুদ্দিন মিয়াঁ (৪০) ও আহত শিশুকন্যার নাম মোনালিসা সরকার৷

আরও পড়ুন: পানীয় জলের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাল মহিলারা

- Advertisement -

এদিকে দক্ষিণ ২৪ পরগনার দুর্ঘটনায় মৃত শিশু খেরিয়া মডার্ন চিলড্রেন অ্যাকাডেমীর ক্লাস ওয়ানের ছাত্র ছিল৷ রোজকার মতো বুধবারও আনিসুর নামের ওই শিশু স্কুল থেকে পুলকারে চেপে বাড়ি ফিরছিল৷ বাসন্তি থানার ভাঙনখালিতে স্কুলভ্যান থেকে নেমে রাস্তা পার হওয়ার সময় গদখালি বারুইপুর রুটের একটি বাস দ্রুতগতিতে এসে পিষে দেয় আনিসুরকে৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার৷

দুর্ঘটনার পর বাসটি নিয়ে চালক পালানোর চেষ্টা করলে স্থানীয়রা ধরে ফেলে ভাঙচুর চালায়৷ পালিয়ে যায় বাসের খালাসি৷ কোনক্রমে পাশে একটি বাড়ির খাটের তলায় লুকিয়ে প্রাণ বাচায় চালক৷ যদিও পরে পুলিশ তাকে আটক করে৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়ায়৷ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে বাসন্তি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে৷ এই ঘটনার পর এলাকায় যান নিয়ন্ত্রণের জন্য বাম্পারের দাবিতে বেশ কিছুক্ষণ রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা৷ পরে পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিলে উঠে যায় অবরোধ৷

আরও পড়ুন: খোলা আকাশের নিচেই চলছে মিড ডে মিল খাওয়া

অন্যদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত মহিরুদ্দিন মিয়াঁ একটি বেসরকারি সংস্থার কর্মী ছিলেন৷ এদিন বিকেলে মালিক সরফরাজ আলির আট বছরের মেয়ে মোনালিসাকে নিয়ে মোটরবাইকে পাথরঘাটা থেকে পাঞ্জারী পাড়া ফিরছিলেন তিনি৷ ধর্মকাঁটা থেকে একটি ট্রাক্টর হঠাৎ রাস্তায় উঠে পড়ায় বাইকের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় মহিরুদ্দিন মিয়াঁর৷ গুরুতর মোনালিসাকে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে৷

আরও পড়ুন: সংরক্ষণের সার্টিফিকেট নকল করলেই ৩ বছরের জেল

Advertisement ---
-----