নাবালিকাকে পাচার করতে গিয়ে গ্রেফতার মহম্মদ-রাম

বর্ধমান: পাচারের উদ্দেশ্যে করা হয়েছিল অপহরণ। কিন্তু হল না শেষরক্ষা। পুলিশের তৎপরতায় উদ্ধার করা হল অপহৃত নাবালিকাকে। একই সঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে এই ঘটনায় জড়িত দুই ব্যক্তিকে।

ধৃত দুই ব্যক্তি হল মহম্মদ সামসাদ এবং সুরেশ রাম। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিহার শরিফ থেকে ওই নাবালিকাকে অপহরণ করে কিষানগঞ্জে নিয়ে যাচ্ছিল। যদিও বর্ধমানেই নাবালিকার সন্ধান পায় পুলিশ। সেখানেই গ্রেফতার করা হয় দুই অভিযুক্তকে।

আরও পড়ুন- অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগে মহিলাকে উলঙ্গ করে নির্যাতন

- Advertisement -

পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে উদ্ধার হওয়া নাবালিকা বিহার শরিফের বাসিন্দা। সে ওষুধ কিনতে বাড়ির বাইরে বেড়িয়েছিল। সেই সময়েই মুখে রুমাল চেপে রাসায়নিকের সাহায্যে বেহুঁশ করে ফেলে মহম্মদ সামসাদ এবং সুরেশ রাম। নাবালিকাকে নিয়ে ট্রেনে করে কিষানগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় তারা। পরিকল্পনা ছিল দশ হাজার টাকায় বিক্রি করবে ওই নাবালিকাকে।

আরও পড়ুন- বাসে ব্লেড নিয়ে হামলায় জখম মহিলা যাত্রী

অন্যদিকে, নাবালিকার পরিবারের পক্ষ থেকে নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়েছে পুলিশের কাছে। আসরে নেমেছে পুলিশ। বিষয়টি জানানো হয় রেল পুলিশকে। ততক্ষণে রেল পুলিশের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ঘুরতে শুরু করেছে নাবালিকার ছবি।

উদ্ধার হওয়া নাবালিকা

সেই সঙ্গে ট্র্যাক করা হচ্ছে নাবালিকার কাছে থাকা মোবাইল। যদিও সেই মোবাইল বন্ধ থাকায় প্রথমে কিঞ্চিৎ ধোঁয়াশায় ছিল পুলিশ। যদিও সেই বাধা দূর হয় অচিরেই। ট্রেন আসানসোলে ঢুকলে হুঁশ ফেরে অপহরণের শিকার হওয়া নাবালিকা মহিলার। কাছে থাকা মোবাইল চালু করতেই তা ট্র্যাক করে ফেলে পুলিশ। এরপরেই তৎপর হয়ে যায় রেলপুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে ট্রেনটি বর্ধমানে ঢুকলেই উদ্ধার করা হয় নাবালিকাকে। একই সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় দুই পাচারকারীকে।

Advertisement ---
---
-----