ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকলে তবেই এবার কেনা যাবে বাইক

কলকাতা:  ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকলে বাইক বিক্রি করা যাবে না। দুর্ঘটনায় রাশ টানতে এই নয়া ব্যবস্থা চালু করছে রাজ্য সরকার।সমস্ত আরটিও-তে বুধবার পরিবহণ দফতর এই মর্মে নির্দেশিকা পাঠিয়ে দিয়েছে।আরটিও এই নির্দেশিকা সমস্ত ডিলারদের কাছে পাঠিয়ে দেবে।

ইদানিং বাইক দুর্ঘটনা বেড়েই চলেছে। সেফ ড্রাইভ সেভ লাইভের মতো প্রকল্প শুরু করলেও, তা্ঁর সুফল মেলেনি। বাইক দুর্ঘটনা প্রাণ বহু মানুষের।পরিবহণ দফতরের দাবি, দুর্ঘটনা ঠেকাতেই বাইক বিক্রির ক্ষেত্রে কিছু নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হল।

জানা গিয়েছে, যিনিই বাইক কিনবেন, তাঁকে ড্রাইভিং লাইসেন্স জমা দিতে হবে ডিলারের কাছে। একটি ফর্ম থাকবে। সেটি পূরণ করতে হবে। এরপর ডিলার সংশ্লিষ্ট এলাকার আরটিও-‌র কাছে ওই আবেদন পাঠিয়ে দেবে। তা পরীক্ষা করে আবার ডিলারের কাছে তা পাঠানো হবে। এবার ডিলার বাইক বিক্রির আগে চালকের পরীক্ষাও নিতে পারেন।

- Advertisement -

দফতরের এক কর্তার কথায়, যথেচ্ছভাবে যাতে নতুন দু’চাকার গাড়ির রেজিস্ট্রেশন না হয় এবং বেআইনিভাবে এই যান চালানো বন্ধ করা যায়, সেকারণে কেন্দ্রীয় মোটর ভেহিকেলস আইনকে আরও কড়াভাবে রূপায়ণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ‘রেজিস্ট্রারিং অথরিটি’কে একগুচ্ছ পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে এখন থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকলে দু’চাকার যান কেনা যাবে না৷ ক্রেতা যদি নাবালক হন, তাহলে তাঁর অভিভাবকের সম্মতি লাগবে।

দিন সাতেক আগে বাসকর্মীদের জন্য কমিশন প্রথা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পরিবহণ দফতর। কমিশন প্রথা তুলে দিয়ে বেতন পরিকাঠামো চালু করার পক্ষে সওয়াল করেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর বিশ্বাস কমিশনপ্রথা তুলে দিলে দুর্ঘটনার সংখ্যা কমবে। এবার দুর্ঘটনায় রাশ টানতে বাইকের ক্ষেত্রেও অভিনব সিদ্ধান্ত নিল পরিবহন দফতর।।

Advertisement ---
-----