পাকিস্তানের মাটিতে ট্রাম্পের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক

ইসলামাবাদ: পাকিস্তানকে আর্থিকভাবে সাসপেন্ড করার পর এবার পাক জঙ্গি ডেরায় ড্রোন হামলা চালাল আমেরিকা। সেই হামলায় হাক্কানি নেটওয়ার্কের দুই জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বুধবার পাক প্রশাসনের তরফে একথা জানানো হয়েছে।

এক পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, পাকিস্তানের আদিবাসী অধ্যুষিত অঞ্চলের দাপা মামোজাই নামে একটি গ্রামে ড্রোন হামলা চালায় আমেরিকা। দুই মিসাইলের আঘাতে আহসান খোরাই, নাসির মেহমুদ নামে দুই হাক্কানি নেটওয়ার্কের জঙ্গি খতম হয়েছে।

গত বছর ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর একাধিকবার আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী এই অঞ্চলে ড্রোন হামলা চালিয়েছে আমেরিকা। চলতি মাসের শুরুতেই এক ড্রোন হামলায় এক ব্যক্তি আহত হয়, এছাড়া গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর আরও এক হামলায় হাক্কানি জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। পাকিস্তানে হাক্কানি নেটওয়ার্কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বারবারই চাপ দিয়েছেন ট্রাম্প। সম্প্রতি পাকিস্তানের জন্য বরাদ্দ ফান্ডেও কাটছাঁট হয়।

চলতি বছরের শুরুতেই পাকিস্তানকে সরাসরি ‘মিথ্যেবাদী’ বলে আক্রমণ করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ আফগানিস্তানে সন্ত্রাস এড়াতে জঙ্গি নিকেশের জন্য অভিযান চালাচ্ছে মার্কিন সেনা৷ কিন্তু পাকিস্তান নিজের দেশে তাদেরকে নিশ্চিন্তে আশ্রয় দিচ্ছে৷ অপরদিকে, আফগান তালিবান এবং হাক্কানি নেটওয়ার্ক আফগানিস্তানে আমেরিকার সেনাদের উপরে হামলা চালাচ্ছে৷ এই অভিযোগেই ট্রাম্প পাকিস্তানকে আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়৷ এরপরেই কোণঠাসা হয়ে পরা পাকিস্তান একের পর এক পালটা তোপ দাগে৷ এবার সেই বিষয়টি নিয়েই মুখ খুললেন পাক সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া৷ তিনি বলেন, পাকিস্তানে আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে আমেরিকা৷ কিন্তু সেই বিষয়টি নিয়ে কোনও পুনর্বিবেচনা চায় না পাকিস্তান৷ কিন্তু বিচার বিবেচনা করে আমেরিকা এহেন সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলে আখ্যা দিলেন তিনি পাকিস্তানকে৷

Advertisement
----
-----