গাড়ির থেকে বৈদ্যুতিক স্কুটার এবং বাইক ব্যবসায় বেশি নজর দেওয়ার পরিকল্পনা উবারের। সংস্থার লাভের ওপর এর প্রভাব পড়লেও এই খাতে নজর দেওয়ার কথা জানিয়েছে সংস্থা। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, শহরের মধ্যে চলাচলের জন্য পৃথক যানবাহন ব্যবস্থা বেশি ভালো। ভবিষ্যতে গ্রাহক আরও নিয়মিতভাবে ছোট ছোট ভ্রমণ করবে। আর সেজন্যে বাইকই বেশি মানুষের কাছের হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এক সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অন্যতম উবর কর্তা জানিয়েছেন, “ব্যস্ত সময়ে একজন মানুষকে ১০ ব্লক দূরে যাত্রা করাতে এক টনের একটি হাল্ক বা ধাতব যান ব্যবহার করাটা সাশ্রয়ী নয়।” আর্থিক দিক থেকে অল্প সময়ের জন্য হয়ত এটি আমাদের জন্য কোনও বিজয় নয়, কিন্তু দীর্ঘ মেয়াদে কৌশলগত দিক থেকে আমরা ঠিক এদিকেই এগোতে চাই।”

উল্লেখ্য, আগের বছর বেশ কিছু বাইক সংস্থায় বিনিয়োগ করেছে উবর। ইতোমধ্যে নিউ ইয়র্ক, ওয়াশিংটনসহ আটটি মার্কিন শহরে চালু করা হয়েছে সংস্থার জাম্প নামের বৈদ্যুতিক বাইক পরিষেবা। শীঘ্রই বার্লিনে এই পরিষেবা করবে উবর। সংস্থার দাবি, একই যাত্রায় গাড়ির চেয়ে বাইক রাইডে কম আয় করে উবর। কিন্তু ভবিষ্যতে এই ঘাটতি কমবে কারণ ছোট ভ্রমণের ক্ষেত্রে গ্রাহক আরও ঘনঘন অ্যাপটি ব্যবহার করবেন।

কর্তার আরও দাবি, এই পরিকল্পনার জন্য চালকদের আয় হয়তো কমবে। কিন্তু দীর্ঘ মেয়াদে চালকরা দীর্ঘ যাত্রা থেকে আরও বেশি লাভবান হবেন। আগের বছর উবারের লোকসান হয়েছে মোট সাড়ে চারশ’ কোটি মার্কিন ডলার। তাই শেয়ার বাজারে প্রবেশ করার আগে চাপের মুখে রয়েছে সংস্থা। ট্যাক্সি ব্যবসা থেকে আয় বাড়লেও বাইক শেয়ারিং এবং খাবার সরবরাহ ব্যবসার পরিধি বাড়ানোয় প্রতিষ্ঠানের লোকসানও দ্রুত বাড়ছে।

----
--