শুভেন্দু ভট্টাচার্য, কোচবিহার: গত চার বছর ধরে ভয় দেখিয়ে নিজের ভাইঝিকে ধর্ষনের অভিযোগে জ্যাঠামশাইকে গ্রেফতার করল কোতয়ালি থানার পুলিশ। এই ঘটনায় প্রতিবেশি এক যুবককেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার আরও এক অভিযুক্ত জ্যাঠাতো দাদা পলাতক।

আরও পড়ুন: ‘আমাকে যৌনদাসী বানিয়ে ছয়মাস ধরে নিয়ম করে ওরা আমাকে ধর্ষণ করত’

শ্রী হিন্দি হাইস্কুলের ১৩ বছরের নাবালিকার বাড়ি কোচবিহার শহরে গান্ধীকলোনী এলাকায়। নির্যাতিতার অভিযোগ, দীর্ঘ দিন ধরে তার উপর যৌন নির্যাতন চালাতো তাঁর জ্যাঠা কার্তিক দাস, জ্যাঠাতুতো দাদা রমেন দাস ও প্রতিবেশী চঞ্চল দে। প্রতিবাদ করলে মারধর করা হত তাঁকে৷

অবশেষে শনিবার স্কুলের এক শিক্ষিকাকে সব ঘটনা খুলে বলে সপ্তম শ্রেনীর ওই ছাত্রী। এর পরেই স্কুলের পক্ষ থেকে পুলিশকে ডাকা হয়। পুলিশ ছাত্রীটির বাবা ও মাকে ডেকে পাঠান। বাবার লিখিত অভিযোগের ভিক্তিতে জ্যাঠা কার্তিক দাস ও প্রতিবেশী চঞ্চল দেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।ঘটনার আর এক অভিযুক্ত জ্যাঠাতুতো দাদা রমেন দাস পলাতক।

----
--