নিউটাউনে অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মঙ্গলবার নিউটাউন থানা এলাকার চন্ডীবেড়িয়া ভাড়াটে বাড়ি থেকে এক ব্যাক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ৷ বছর ৪৬ এর প্রশান্ত বিশ্বাস প্রায় ছয় বছর ধরে নিউটাউন চন্ডীবেড়িয়ার একটি ঘর ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিলেন৷ তিনি একাই ওই ঘরে থাকতেন৷ তার বোন মিতা সেন থাকেন বাগুইআটি৷

পুলিশ সূত্রের খবর, মিতা সেন গত রবিবার রাতে তাঁর দাদার সাথে ফোনে কথা বলেন৷ এরপরে বারংবার ফোন করেও দাদা প্রশান্ত বিশ্বাসের সাথে তিনি যোগাযোগ করতে পারেনি৷ মঙ্গলবার দুপুরে মিতা সেনের স্বামী প্রদীপ সেন নিউটাউন চন্ডীবেড়িয়ায় আসেন৷ তিনি ওই ভাড়াটে বাড়ির ঘরের দরজা খুলে দেখেন প্রশান্ত বিশ্বাসের মৃতু্দেহ৷ স্থানীয় বাসিন্দাদের ঘটনাটি জানালে তারা পুলিশকে খবর দেয়৷ এরপর পুলিশ গিয়ে প্রশান্ত বিশ্বাসকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করে বিধাননগর হাসপাতালে পাঠায়৷ সেখানে তাকে মৃত বলে ঘোষনা করা হয়৷ মৃতের দেহে কোনও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলে পুলিশের দাবি৷

পরিবার সূত্রে খবর, প্রশান্ত বিশ্বাস অবিবাহিত ছিলেন এবং কাজ করতেন জি ফোর সিকিউরিটি কোম্পানির নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে৷ একাকিত্ব না অন্য কোন কারনে মৃত্যু তা ক্ষতিয়ে দেখছে পুলিশ৷

- Advertisement -

অন্যদিকে সল্টলেক আই এ ব্লকে একটি ঘর থেকে মনিকা পালিত নামে এক মহিলার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ৷ পুলিশ সূত্রের খবর মৃত মহিলার আত্মীয়দের তরফে এখনও পর্যন্ত কোনও অভিযোগ জমা পরেনি৷ বিধাননগর দক্ষিণ থানার পুলিশ অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে৷

Advertisement
---