লখনউ: সংবিধান প্রণেতা বি আর আম্বেদকরের নামের ‘রামজী’কেও ছাড় দিল না উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকার৷ আনুষ্ঠানিকভাবে সেই রামজীকে সরকারি স্বীকৃতি দিল তারা৷

বুধবার এই ইস্যুতে একটি অর্ডারও পাশ করানো হয়৷ এবার থেকে সমস্ত সরকারি নথি, দলিলে ভীমরাও রামজী আম্বেদকরের নাম পুরো লেখা হবে বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ অর্থাৎ বি আর আম্বেদকর লেখা চলবে না বলে ওই নির্দেশিকায় নিয়ম জারি করা হয়েছে৷

Advertisement

২০১৭ সালে ডিসেম্বর মাসেই এই উদ্যোগ নেন উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল রাম নায়েক৷ সংবিধানে যেভাবে স্বাক্ষর করেছেন আব্দেকর সেই ভাবেই উত্তরপ্রদেশের প্রতিটি সরকারি ফাইলে আম্বেককরের পুরো নাম উল্লেখ থাকবে বলে নির্দেশ রয়েছে৷

এই ইস্যুতে উদ্যোগ নেওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখেছিলেন রাজ্যপাল রাম নায়েক৷ চিঠি দেওয়া হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকেও৷ সেখানেই সংবিধান প্রণেতার নামে এই পরিবর্তন আনার আবেদন জানানো হয়৷

তারপরেই জেনেরাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি জানান, ড: ভীমরাও আম্বেদকরের বদলে এবার থেকে লেখা হবে ড: ভীমরাও রামজী আম্বেদকর৷ এখানে আম্বেদকরে একটি অতিরিক্ত ‘এ’ যোগ করা হয়েছে (Dr Bhimrao Ramji Aambedkar)৷

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই বিরোধিতা শুরু করেছে সমাজবাদী পার্টি৷ দলিতদের নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে তারা৷ ভোটের দিকে তাকিয়েই বিজেপির এই চক্রান্ত বলে দাবি করেছে এসপি৷ তবে এর মধ্যে কোনও ভোটের রাজনীতি নেই বলে দাবি করেছে আরএসএস৷

----
--