নয়াদিল্লি : শেষকৃত্য সম্পন্ন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর৷ তাঁর স্মৃতিচারণা করেছেন বিশ্বের তাবড় নেতারা৷ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসেছে শোকবার্তা৷ স্মৃতিচারণা করেছেন যোগগুরু রামদেবও৷ একটি ট্যুইট বার্তায় তিনি বলেন অনেক কিছু শিখেছেন তিনি অটলজীর কাছ থেকে৷ যোগের প্রতি সদ্য প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ আকর্ষণ ছিল বলে জানিয়েছেন তিনি৷

বৃহস্পতিবার একটি ট্যুইট করেন বাবা রামদেব৷ সেখানে তিনি লেখেন একজন আদর্শ দেশনায়ক, অজাতশত্রু, মহান নেতা চলে গেলেন৷ যোগের প্রতি তাঁর উৎসাহ ছিল৷ ২০০৫ সালে প্রথমবার তাঁর সঙ্গে সাক্ষাত হয়৷ তিনি যোগ শিখতে চেয়েছিলেন৷ তাঁকে যোগ শেখান বাবা রামদেব৷

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেওয়া সাক্ষাতকারে রামদেব বলেন প্রাক্তন এই প্রধানমন্ত্রী নিজের সারা জীবন দেশের সেবায় নিয়োজিত করেছিলেন৷ সাধারণ মানুষের ভালোর জন্য সারা জীবন কাটিয়েছিলেন৷ আগামী দিনের নেতাদের জন্য বাজপেয়ীজি একজন আদর্শ উদাহরণ৷

ইতিমধ্যেই শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর। গান স্যালুটে প্রিয় নেতাকে বিদায় জানিয়েছে দেশ। তাঁর শবদেহের জাতীয় পতাকা তুলে দেওয়া হয় পরিবারের সদস্যদের হাতে। সম্মান জানালেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রনেতারা।

শববাহী গাড়ির সঙ্গেই হাঁটেন প্রধানমন্ত্রী মোদী-অমিত শাহরা। গোলাপের পাপড়িতে বাজপেয়ীকে শেষ শ্রদ্ধা রাস্তায় পাশে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েক হাজার সাধারণ মানুষের। শেষ শ্রদ্ধাজ্ঞাপনে বিজেপির সদর দফতরে হাজির হন লালকৃষ্ণ আডবাণী এবং তাঁর কন্যা, বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনি, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফাড়নিস, ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী রামন সিং, ডিএমকে নেতা এ রাজা, অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল, মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিং৷

প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে শেষ শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, কেন্দ্রীয়মন্ত্রী সুরেশ প্রভু, বিজেপি নেতা রাম মাধব৷ ভুটানের রাজা থেকে শুরু করে নেপাল, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ থেকে গণ্যমান্য ব্যক্তিরা শেষ শ্রদ্ধা জানান প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে৷

----
--