মুম্বই ছিটকে যাওয়ায় ভীষণ খুশি ফ্র্যাঞ্চাইজি মালকিন!

পুণে: শুধু মাত্র ক্রীড়া জগতেই নয়, সমাজের সর্বস্তরেই এমনটা দেখা যায় প্রায়শই৷ নিজে সফল না হলেও অন্যের ব্যর্থতা, বিশেষ করে শত্রুপক্ষের অবনতিতে আনন্দ খুঁজে পান অনেকেই৷ হয়ত বা ব্যর্থতার হতাশা কাটিয়ে উঠতে স্বান্তনা খুঁজে পাওয়া যায় এর মধ্যেই৷ বিষয়টা নিজের নাক কেটে পরের যাত্রা ভঙ্গের মতো না হলেও বার্ষিক পরীক্ষায় নিজের সন্তান কৃতকার্য হল কিনা, তার থেকেও বেশি কৌতুহল প্রতিবেশীর সন্তান ফেল করেছে কি না, তা খোঁজ নেওয়ার মতোই৷

একাদশ আইপিএলের শেষ লিগ ম্যাচে প্রীতি জিন্টার আচরণ ছিল খানিকটা এরকমই৷ নিজের দল কিংস ইলেভেন পঞ্জাব চেন্নাইয়ের কাছে হেরে ছিকটে গেলেও প্রীতিকে খুশি করেছে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের প্লে-অফ থেকে ছিটকে যাওয়া৷

রবিবার প্রথম ম্যাচে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের কাছে হেরে আইপিএল থেকে বিদায় নেয় মুম্বই৷ পরের ম্যাচে চেন্নাইয়ের কাছে হেরে ছিটকে যায় পঞ্জাব৷ পুণের এমসিএ স্টেডিয়ামে পঞ্জাবের বিদায় যখন নিশ্চিত, তখন গ্যলারিতে এক কিংস অফিসিয়ালকে উদ্দেশ্য করে প্রীতি জিন্টাকে বলতে দেখা যায় যেস মুম্বই প্লে-অফে না ওঠায় তিনি ভীষণ খুশি৷

বলতে দেখা যায় বলার কারণ, প্রীতি জিন্টার মুখভঙ্গি ক্যামেরাবন্দি হলেও অডিও রেকর্ড করা সম্ভব ছিল না৷ তবে নূন্যতম লিপ রিডিংয়ের দক্ষতা থাকলে ভিডিও ক্লিপসে প্রীতির মুখে যথায়থ অডিও বসিয়ে নিতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়৷

সোশ্যাল মিডিয়ায় মুহূর্তে ভাইরাল হওয়া ভিডিও ক্লিপটি দেখে সবাই প্রায় একমত যে, প্রীতি বলছিলেন, ‘আমি ভীষণ ভীষণ খুশি মুম্বই প্লে-অফে ওঠেনি৷ আমি সত্যিই খুশি৷’

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এমনটা দেখতে অভ্যস্থ ভারতীয় সমর্থকরা৷ পাকিস্তান ও বাংলাদেশের মতো প্রতিবেশী দেশগুলি নিজেরা জিতলে যতটা না খুশি হয়, তার থেকে বেশি খুশি হয় ভারত হারলে৷

Advertisement ---
---
-----