অন্ধ্রে তিতলি প্রাণ কাড়ল আট জনের

অমরাবতী: তিতলির ঝাপটায় তছনছ অন্ধ্রপ্রদেশ৷ ভয়ানক সাইক্লোনে রাজ্যে প্রাণ গেল আট জনের৷ মৃতদের মধ্যে ৬ জন মৎস্যজীবী৷ নিখোঁজ মৎস্যজীবীদের দুটি নৌকা৷ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির মুখে উপকূলবর্তী দুই জেলা শ্রীকাকুলাম ও ভিজিআনাগ্রাম৷ বৃহস্পতিবার রাজ্য প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে এই খবর৷

এদিকে তিতলির দাপটে অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাকুলাম জেলায় হাজার হাজার গাছ ভেঙে গিয়েছে৷ উপড়ে গিয়েছে বিদ্যুতের খুঁটি৷ সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে৷ রাস্তায় গাছ পড়ে যাওয়ায় গাড়ি চলাচল ব্যহত হয়৷ পরিবহণ নিগম তাদের পরিষেবা বন্ধ রাখতে বাধ্য হয়৷ পরিবহণমন্ত্রী কে আটচাননাইডু জেলা পরিদর্শনে যান৷ হাওয়া অফিসের রেকর্ড বলছে এখানে ২ থেকে ২৬ সেন্টিমিটার বৃষ্টি হয়েছে৷ পরিস্থিতির উপর নজর রাখছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী এন চন্দ্রবাবু নাইডু৷

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার ভোর রাত থেকেই শুরু হয় তিতলির তাণ্ডব৷ ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে ভারী বৃষ্টিপাতের জেরে এখনই লণ্ডভণ্ড ওড়িশার গোপালপুর ও তৎসংলগ্ন এলাকা৷ একই অবস্থা অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাকুলাম ও ভিজিআনারগ্রাম৷ হাওয়া অফিস জানিয়েছে, ওড়িশায় ১৪০ কিমি বেগে আছড়ে পড়ে তিতলি৷

মৌসম ভবনের পূর্বাভাসের পরই দুই রাজ্য সরকারের তরফে জারি করা হয়েছে সতর্কতা৷ ইতিমধ্যে উপকূলবর্তী জেলাগুলি থেকে লক্ষ লক্ষ মানুষকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে গিয়েছে৷ বন্ধ রাখা হয়েছে স্কুল, কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান৷ মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করা হয়েছে৷ সমুদ্র তীরবর্তী হোটেল থেকে পর্যটকদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ পাশাপাশি পর্যটকদেরও সমুদ্রে নামতে বারণ করা হয়েছে৷

Advertisement ---
---
-----