সুদর্শন ছাড়াই মহানগরের রাজপথে নামবেন শ’য়ে শ’য়ে কৃষ্ণ

গুগল থেকে প্রাপ্ত ছবি।

শেখর দুবে, কলকাতা: রামনবমীর পর এবার কৃষ্ণ জন্মাষ্টমীতেও মহানগর জুড়ে শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে বিভিন্ন হিন্দু সংগঠন। বিশ্বহিন্দু পরিষদ, আরএসএস তো রয়েছেই। পাশাপাশি থাকছে গৌড়ীয় মঠের মতো প্রাচীন সনাতনপন্থী সংগঠনও। এবারের শোভাযাত্রায় কৃষ্ণ থাকলেও সুদর্শন চক্র থাকছে না বলেই জানিয়েছে সব পক্ষ। বরং বাঁশি হাতে প্রেমের কৃষ্ণদেরই দেখা যাবে শোভাযাত্রার মিছিলে।

কারও কাছে এটি কৃষ্ণের জন্ম উপলক্ষ করে প্রেমের উৎসব। তো কেউ এই উৎসবকে সামনে রেখে রাজনৈতিক বার্তা দিতেও তৈরি। তবে উদ্দেশ্য যাই হোক না কেন রবিবার রাজ্য এবং শহর কলকাতা জুড়ে জন্মাষ্টমীর উৎসবে সামিল হবেন কয়েক হাজার মানুষ।

১৯১৮ সালে কলকাতায় বাগবাজার সংলগ্ন অঞ্চলের একটি ভাড়া বাড়িতে বাগবাজার গৌড়ীয় মঠের স্থাপনা হয়েছিল। ১৯১৯ সাল থেকেই কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালন করে আসছে এই সনাতনী মঠ৷ এরপর ১৬/এ কালীপ্রসাদ চক্রবর্তী স্ট্রিট (বাগবাজারে) নাট্যমন্দির এবং মঠের স্থাপনা হয় ১৯৩০ সালে। গৌড়ীয় মঠের একশ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশে হিন্দুরা নিরাপদে থাকবেন: শেখ হাসিনা

পঞ্জিকা মতে যে দিন জন্মাষ্টমী তিথি তার একদিন পরে গৌড়ীয় মঠে কৃষ্ণের জন্মের উৎসব পালন করা হয়৷ অর্থাৎ রবিবার জন্মাষ্টমী পালন হলেও গৌড়ীয় মঠে সেটি পালিত হবে রবি এবং সোমবার দুদিন ধরে। শোভাযাত্রাও বেরোবে সোমবার। মঠের তরফে জানানো হয়েছে, বাগবাজার গৌড়ীয় মঠ থেকে জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড় এবং বিধান সরণী হয়ে কলেজস্ট্রিট পৌঁছবে। সেখান থেকে কলাকার স্ট্রিট, আহিরীটোলা, বিকে পাল হয়ে ফিরে আসবে বাগবাজার মঠে। গৌড়ীয় মঠের ভক্তিনিষ্ঠ মধুসূদন মহারাজ জানিয়েছেন, শোভাযাত্রায় ছোট বাচ্চারা কৃষ্ণ, রাধার সাজে থাকবে৷

জন্মাষ্টমীর দিনই বিশ্ব হিন্দু পরিষদেরও (ভিএইচপি) প্রতিষ্ঠা দিবস। তাই জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা শুধু উৎসবের আকারেই নয় হিন্দুদের একত্রিত হয়ে শক্তি প্রদর্শনের একটি সুযোগ। এমনটাই মনে করেন বিশ্ব হিন্দু পর্ষদের পূর্বাঞ্চল শাখার সেক্রেটারি শচীন সিংহ। কলকাতার বিভিন্ন জায়গাতে শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে ভিএচপি। তার মধ্যে নজরে থাকছে,

১)সোনার বাংলা কমপ্লেক্স,গড়িয়া মোড়(সকাল ৮টা)।

২)ভূপেন বোস অ্যাভিনিউ, শ্যামবাজার, ভিএচপি সদর দপ্তর। (সময়-৩.৩০ দুপুর)

৩)ঠাকুরপুকুর ৩/এ বাস স্ট্যান্ড(বিকেল ৪টা)

৪)শিবমন্দির লোহাপুল পাঞ্জাবি পাড়া, ব্যান্ডেল গেট (বিকেল ৫টা)।