মাহিকে ব্যাট করতে দিলেন না সৌরভ! ধোনি ধামাকা থেকে বঞ্চিত কল্যাণী

কল্যাণী: রাজ্য দলের হয়ে বিজয় হাজারে ট্রফি খেলতে এসে কলকাতার মন জয় করে নিয়েছেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি৷ কর্ণাটকের বিপক্ষে প্রতম ম্যাচে ভাল ব্যাট করেও দলকে অল্পের জন্য জেতাতে পারনেনি৷ ছত্তিশগড়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য ধোনি ধামাকা দেখিয়ে সহজে ম্যাচ জিতে নেয় ঝাড়খন্ড৷ এরপর মঙ্গলবার মিশন কল্যাণীতে গিয়েও আরও একটি জয় তুলে নিল ঝাড়খন্ড৷ কিন্তু মাঠে উপস্থিত দর্শকরা একটু হতাশই হয়েছেন৷ ধোনিকে ঘিরে কল্যাণীতে ছিল সাজো সাজো রব! আর সেই ধোনি কি-না ব্যাটই করতে পারলেন না!

আসলে সার্ভিসেসের বিপক্ষে জয়ের জন্য শেষ পর্যন্ত মাহি ম্যাজিকের আর প্রয়োজনই হয়নি৷ কাজটি সেরে দিয়েছেন সৌরভ! না সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় নয়, সৌরভ তিওয়ারি আর ঈশাঙ্ক জাগ্গির দুরন্ত জোড়া সেঞ্চুরি বিজয় হাজারে ট্রফির ম্যাচে ঝাড়খন্ডকে আরও একটি জয় এনে দিয়েছে৷ তাই ব্যাট হাতে আর নামতে হয়নি ধোনিকে৷
এদিন কল্যাণীতে সার্ভিসেসের বিরুদ্ধে ৭ উইকেটে জয় পায় ধোনির দল। প্রথমে ব্যাট করে ২৭৭ রানের লক্ষ্যমাত্রা খাড়া করে সার্ভিসেস৷ জবাবে রান তাড়া করতে নেমে ১৭ ওভারে ৬৫ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বেশ চাপে পড়ে যায় ঝাড়খন্ড।
তবে কল্যাণীর দর্শকরা বোধহয় এমনটাই চাইছিলেন! আসলে ধোনি-ধামাকার অপেক্ষাতেই ছিলেন সকলে। কিন্তু, দলের অপর দুই নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান সৌরভ তিওয়ারি এবং ঈশাঙ্ক জাগ্গি হতাশ করলেন দর্শকদের।
এদিন ১০৩ বলে অপরাজিত ১০২ রান করেন সৌরভ। তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল ৩টি চার ও ৬টি ছক্কায়। অন্যপ্রান্তে আরও আক্রমণাত্মক ছিলেন জাগ্গি। ৯২ বলে তাঁর অপরাজিত ১১৬ রান সাজানো ছিল ১০টি চার ও ৪টি ছক্কায়।
চতুর্থ উইকেটে ২১৪ রানের অবিচ্ছেদ্য পার্টনারশিপ গড়ে তুলে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন দুই শতরানকারী। ২২ বল বাকি থাকতেই এদিনের ম্যাচ জিতে যায় ধোনি-বাহিনী। আর ‘ক্যাপ্টেন কুল’কে ব্যাট হাতে না দেখতে পেরে হতাশ দর্শকরা।

Advertisement
----
-----