পরিশ্রুত পানীয় জলের দাবিতে সরব গ্রামবাসীরা

স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: এবার পরিশ্রুত পানীয় জলের দাবিতে ব্লক অফিসে বিক্ষোভ দেখালেন একদল মহিলা৷ সোমবার বাঁকুড়ার হীড়বাঁধ ব্লক অফিসে গিয়ে বেশ কিছু মহিলা গ্রামে জলের দাবিতে একজোট হয়৷ সেখানে তাদের দাবি যাতে মানা হয় সে কারণে তারা বিডিওকে ডেপুটেশন দেন।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, এলাকায় যে কটি নলকূপ রয়েছে সেই নলকূপের জল পানের অযোগ্য। গ্রামের উপর দিয়ে পরিশ্রুত পানীয় জলের প্রকল্পের লাইন গেলেও তারা বঞ্চিত রয়েছেন সেই জল থেকে।

আরও পড়ুন: পরমের বিদেশ জয়

- Advertisement -

এই প্রসঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দা মল্লিকা মহান্তী বলেছেন, ‘‘গ্রাম দিয়ে প্রকল্পের পানীয় জলের পাইপ লাইন গেলেও হীড়বাঁধ ও মশিয়াড়া সহ মোট সাতটি মৌজায় পানীয় জল সরবরাহ হয় না। গত দুই থেকে তিন বছর আগে এই প্রকল্প সূচনা হয়৷ কিন্তু তাতে কোনও সুরাহা হয় না গ্রামবাসীদের৷ পানীয় জল থেকে বঞ্চিত থেকে যায় গ্রামের মানুষরা।’’

অন্যদিকে, প্রশাসন সূত্রের খবর, সাতটি মৌজায় পানীয় জল প্রকল্পের সরকারি কাজ চলছে৷ দ্রুত জল সরবরাহ শুরু করার সব রকম বন্দোবস্ত ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে৷

আরও পড়ুন: শুরু থেকেই আমনা, নজরে নতুন স্ট্রাইকার

হীড়বাঁধ ব্লকের বিডিও শঙ্খশুভ্র দে বলেন, ‘‘সাতটি মৌজায় জল সরবরাহ প্রকল্পের কাজের সরকারি প্রক্রিয়া চলছে। টেন্ডারের জন্য আটকে রয়েছে।’’ খুব শীঘ্রই এই জল সরবরাহের কাজ শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

প্রসঙ্গত বলা যায়, রাজ্য হোক বা রাজ্যের বাইরে প্রত্যন্ত গ্রামে পানীয় জলের সমস্যা বহু পুরনো৷ বরাবরই পরিশ্রুত পানীয় জলের দাবিতে সরব হয়েছে গ্রামবাসীরা৷ আর এই সমস্যার কারণে সব থেকে বেশি ভুগতে হয় গ্রামবাসীদেরই৷ কেননা জল বাহিত নানা রোগ বাসা বাঁধে তাদের শরীরে৷

আরও পড়ুন: একই দিনে টিটাগড়ের দুই মিলে অশান্তি

সেখান থেকে অসুস্থ হয়ে পড়ে গ্রামের কচিকাঁচা থেকে বৃদ্ধ অনেকেই৷ এমনকি অপরিষ্কার জমা জল থেকে জীবাণুর সৃষ্টি হয়৷ ফলে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বেড়ে ওঠে গ্রামের শিশুরা৷ বর্তমানে এই পরিস্থিতিকে পাল্টাতেই পানীয় জলের প্রকল্প চালু করা হয়৷ আর সেই প্রকল্পের অধিকারেই সরব হয় বাঁকুড়ার গ্রামবাসীরা৷

আরও পড়ুন: চলুন আলাপ করা যাক, প্রিয়াঙ্কার ‘মিড-নাইট ক্রাশ’ এর সঙ্গে

Advertisement ---
---
-----