সব পড়ুয়া ফেল, ক্ষিপ্ত গ্রামবাসী কি করল জানেন?

চণ্ডীগড়: অনেক আশা নিয়ে স্কুলে ভরতি করিয়েছিলেন অভিভাবকরা৷ পড়াশুনো চলছিল দিব্যি৷ তবে ফল আশানুরূপ হল না৷ শুধু আশানুরূপই নয়, আশাহত হলেন অভিভাবকরা৷ মঙ্গলবারই বেরিয়েছে সিবিএসই–র দশমের ফলাফল। এরপরেই দেখা গেল অদ্ভুত ঘটনা৷ হরিয়ানার পালওয়ালের একমাত্র স্কুল দিঘট সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুল৷ দশম শ্রেণীতে পড়ুয়ার সংখ্যা মোট ৫১ জন৷

এই স্কুলের কোনও পড়ুয়াই বোর্ড পরীক্ষার গন্ডি পেরোতে পারেনি৷ এই ভয়াবহ ফলে কার্যত হতাশ গ্রামবাসীরা৷ তারা রীতিমতো ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন৷ এর জেরেই স্কুল বন্ধ করে দিলেন গ্রামবাসীরা। তাদের দাবি যে ৫১ জন পরীক্ষা দিয়েছিল, তারা সবাই খারাপ ছাত্র, তা হতে পারেনা৷ ফল খারাপ হওয়ার পিছনে দায়ী স্কুলের সব শিক্ষক৷

স্কুলের পরিকাঠামো অত্যন্ত খারাপ এই অভিযোগ তুলে তারা রীতিমত বিদ্রোহ ঘোষণা করেন৷ তালা ঝুলিয়ে দেন স্কুলে৷ শিক্ষকদের কাজের প্রতি মনোযোগ নেই এই অভিযোগ তুলে তাদের দাবি তাঁরাই ছাত্রছাত্রীদের প্রতি অবহেলা করেছেন। সেকারণেই তারা পাস করতে পারেনি।

- Advertisement -

গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান জিতেন্দ্র তলওয়ার জানিয়েছেন, স্কুলের এই পরিস্থিতি নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি৷ তবে শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী হরিয়ানা সরকার এই গোটা ঘটনার তদন্ত করতে নির্দেশ দিয়েছে৷

Advertisement
---