বিমানবন্দরেই বাগদান সারলেন সােনার মেয়ে

নয়াদিল্লি: দেশের প্রথম মহিলা কুস্তিগীর হিসেবে সোনা জিতে ইতিহাস গড়েছেন আগেই। শনিবার দেশে পা দিয়ে বিমানবন্দরেই বাগদান সেরে ফেললেন সোনার মেয়ে ভিনেশ ফোগত। শনিবার ২৪ তম জন্মদিন ছিল হরিয়ানার এই মহিলা কুস্তিগীরের। আর জন্মদিনেই নিজের বহুদিনের বন্ধু সোমবীর রাঠির সঙ্গে বাগদান পর্বটা সেরে ফেললেন দেশের ফোগত।

আরও পড়ুন: এশিয়াডে সোনা জিতে ইতিহাস গড়লেন নীরজ

সোনার পদক গলায় ঝুলিয়েই ফোগত এদিন পা রাখেন ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। বিমানবন্দরে দুই পরিবারের উপস্থিতিতেই আংটি বদল করেন ভিনেস-সোমবীর। ভিনেসের মত সোমবীরও পেশায় একজন গ্রিকো-রোমান কুস্তিগীর। দীর্ঘ ৭-৮ বছর পর অবশেষে পূর্ণতা পেল তাদের এই সম্পর্ক। মুহূর্তটি স্মরণীয় করে রাখতে বিমানবন্দর চত্বরেই কেক কাটার অনুষ্ঠানের আয়োজন করে দুই পরিবারের সদস্যরা। সবমিলিয়ে ভিন্নস্বাদের অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়েই সম্পন্ন হয় দুই কুস্তিগীরের বাগদান পর্ব।

- Advertisement -

আরও পড়ুন: এশিয়াডে দুই ভারতীয় অ্যাথলিটকে নিয়ে গুজব

জাকার্তায় সোনা জেতার পর গেমস ভিলেজে নীরজ চোপড়ার সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ঘিরে শুরু হয় কানাঘুষো। তবে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত এই খবরকে গুজব বলে উড়িয়ে দেন দুই অ্যাথলিটই। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের এই সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেন ভিনেস-নীরজ দুজনেই। কুস্তির আখড়ায় সোমবীর হলেন ফোগতের প্রাক্তন সতীর্থ৷  জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জজয়ী কুস্তিগীর সোমবীর এখন নর্দান রেলওয়ের ট্রেন টিকিট পরীক্ষকের চাকরি করছেন৷

আরও পড়ুন: এশিয়ান গেমসে ভারতের দ্বিতীয় সোনা

এরপর দেশে ফিরে বিমানবন্দরেই বাগদান পর্ব সেরে ফেলায় ভ্রূ কুঁচকেছেন অনেকেই। তবে এই ঘটনাকে মোটেই সারপ্রাইজ বলতে রাজি নন ভিনেস। এমনকী নীরজের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার কারণ যে এটা নয়, তাও বুঝিয়ে দিয়েছেন সোনাজয়ী কুস্তিগীর। ভিনেসের কথায়, ‘নীরজ এবং আমাকে ঘিরে তৈরি হওয়া খবর সম্পূর্ণই ভিত্তিহীন। যার কোন সত্যতা নেই। সোমবীর আমার ৭-৮ বছরের পুরনো বন্ধু এবং আমাদের সম্পর্ক কারও কাছেই অজানা নয়।’

আরও পড়ুন: সোনার মেয়ের জন্য পুরস্কার ৩ কোটি

Advertisement ---
---
-----