ভুল চিকিৎসায় দৃষ্টিহীন শিশু

রাহুল মণ্ডল, মালদহ: ভুল চিকিৎসায় চোখ হারালো পাঁচ বছরের এক শিশু।ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের হরিশচন্দ্রপুরে।চিকিৎসকের বিরুদ্ধে হরিশচন্দ্রপুর থানার চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ দায়ের করেছে শিশুটির পরিবার৷
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, চাঁচল থানার কলিগ্রামের বাসিন্দা শেখ খুরসেদ পেশায় চাষি৷ তাঁর পাঁচ বছরের ছেলে আকতার শেখ জুলাই মাসে বাড়িতে পাটকাঠি নিয়ে বন্ধুদের সাথে খেলছিল৷ সেই সময় হঠাৎ পাটকাঠিটি তার ডান চোখে ঢুকে যায়।সঙ্গে সঙ্গে পরিবারের লোকজন হরিশচন্দ্রপুরের চক্ষু চিকিৎসক তাপস কুমার ভট্টাচার্য কাছে শিশুটিকে নিয়ে যায়৷ তিনিই ওই শিশুটির চোখ অপারেশন করেন। এরপর বেশ কিছু দিন কেটে গেলেও তার চোখ আর ঠিক হয় নি বলে পরিবারের অভিযোগ। তাঁরা জানিয়েছেন, ওই চিকিৎসকের কাছে শিশুটিকে নিয়ে গেলে তিনি কলকাতা বা ভেলোরে নিয়ে চিকিৎসার পরামর্শ দেন৷
এরপর পরিবারের লোকেরা শিশুটিকে কোলকাতা নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসকরা জানিয়ে দেন, সংক্রামিত হয়ে তার ডান চোখ পুরোপুরি নষ্ট হয়ে গিয়েছে৷কলকাতা থেকে ফিরে শিশুটির বাবা ক্ষোভে, হতাশায় তাপস কুমার ভট্টাচার্যের নামে হরিশচন্দ্রপুর থানার চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ দায়ের করেন। জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত চিকিৎসক পলাতক৷

 

Advertisement
---