এনকাউন্টারে খতম দুস্কৃতির কাছে মিলল একে ৪৭ রাইফেল

লখনউ: পুলিশের সঙ্গে এনকাউন্টারে খতম হল দুই কুখ্যাত দুস্কৃতি৷ উত্তরপ্রদেশে ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে দুটি পৃথক ঘটনায় দুই দুস্কৃতি এনকাউন্টারে মারা যায়৷ এই ঘটনায় আরও পাঁচ জন জখম হয়েছে৷ পুলিশের খাতায় এরা সকলেই অপরাধী৷

প্রথম ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের নয়ডায়৷ দিল্লি থেকে ১৫ কিমি দুরে পুলিশের গুলিতে মারা গিয়েছে শ্রাবণ চোধুরি৷ নয়ডা ও দিল্লির একাধিক থানায় এই শ্রাবণের নামে খুন, রাহাজানির মতো একাধিক গুরুতর অভিযোগ রয়েছে৷ তাকে ধরার জন্য পুলিশ ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়ার কথাও ঘোষণা করে৷ তার কাছ থেকে একে ৪৭ রাইফেল ও আরও বেশ কিছু অস্ত্র উদ্ধার হয়েছে৷

অপরদিকে সাহারনপুরে এহসান নামে এক দুস্কৃতি পুলিশের গুলিতে মারা যায়৷ শনিবার গভীর রাতে পুলিশের কাছে খবর আসে এক দুস্কৃতি টাকা ভরতি ব্যাগ ছিনচাই করে পালিয়েছে৷ খবর পেয়ে ওই দুস্কৃতিকে ধাওয়া করে পুলিশ৷ দু’পক্ষের মধ্যে গুলির লড়াই হয়৷ তার ছোড়া গুলিতে শেষপর্যন্ত পুলিশের গুলিতে মারা যায় সে৷

- Advertisement -

এছাড়া আরও পাঁচ কুখ্যাত অপরাধীকে জালে পোড়ে পুলিশ৷ এদের মধ্যে একজন জিতেন্দ্র৷ যাকে ধরতে পুলিশ ২৫ হাজার টাকা নগদ পুরস্কারের কথা ঘোষণা করে৷ শনিবার গভীর রাতে দাদরিতে পুলিশ ও জিতেন্দ্রের মধ্যে প্রবল গুলির লড়াই হয়৷ তাতে সে জখম হয়৷ এছাড়া গাজিয়াবাদ, মুজজফনগরে আরও তিনজন কুখ্যাত অপরাধী পুলিশের গুলিতে জখম হয়৷ ছ’টি পৃথক এনকাউন্টারে তিন জন পুলিশ কর্মী জখম হয়েছেন৷

উত্তরপ্রদেশে এনকাউন্টার কোনও নতুন ঘটনা নয়৷ এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসে ৪৮ ঘন্টার ব্যবধানে ১৮টি এনকাউন্টার করে পুলিশ৷ সেই সঙ্গে ২৫জন অপরাধীকে গ্রেফতার করে৷

Advertisement ---
---
-----