ফাইল ছবি

কলকাতা: পরীক্ষা দিত বসে কপালে হাত পরীক্ষার্থীদের৷ প্রশ্নপত্র যেন চেনা চেনা! পরীক্ষার্থীদের তৎপরতায় যা ধরা পড়ল তা হতবাক করার মতোই৷  আসলে আগের বছর প্রশ্নপত্রই পেয়েছেন পরীক্ষার্থীরা৷ সোমবার এই অবাক করা ঘটনা ঘটল রাজ্যের WBCS পরীক্ষায়৷

আজ ছিল ঐচ্ছিক বিষয় উর্দুর পরীক্ষা৷ সেই প্রশ্নপত্রেই ঘটে বড়সড় বিপত্তি৷ অগত্যা বাতিল হয় WBCS পরীক্ষা৷ পাবলির সার্ভিস কমিশনের তরফে এখনও এই গাফিলতির সদুত্তর মেলেনি৷ নিয়ম অনুসারে, গত বছরের প্রশ্নের ৩০ শতাংশর বেশি পুনরাবৃত্তি নতুন প্রশ্নে চলে না, সেখানে ১০০ শতাংশই গত বছরের প্রশ্ন৷ গোটা ঘটনায় প্রশ্নের মুখে পিএসসি৷

Advertisement

সর্বোচ্চ কর্তাদের চরম গাফিলতির জেরেই এই প্রশ্নবিভ্রাট বলে অভিযোগ উঠছে৷ বিষয়টি জানাজানি হতেই পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছন পিএসসির চেয়ারম্যান দীপঙ্কর দাশগুপ্ত৷ পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে গোটা ঘটনার সত্যতা চাক্ষুস করেন খোদ চেয়ারম্যান৷
১৭ অগাস্ট থেকে শুরু হয়েছে WBCS পরীক্ষা৷ সোমবার ছিল ২টি ঐচ্ছিক বিষয়ের পরীক্ষা৷ নিয়ম অনুসারে, পরীক্ষার প্রশ্নপত্র কেন্দ্রে পৌঁছনর আগে বিশেষ বৈঠকে বসেন চেয়ারম্যান৷ কোশ্চেন সেটারদের সহ্গে বৈঠকের পরই প্রশ্নপত্র ছাড়া হয়৷

প্রশ্ন উঠছে সেই বৈঠক কি করে উঠতে পারেননি চেয়ারম্যান? জানা যাচ্ছে, পিএসসির অন্দরে চূড়ান্ত জট, আর তার জেরেই এই ধরণের গাফিলতি৷ কোনও ভাবেই এই ধরণের গাফিলতি বরদাস্ত করা হবে না বলে জানিয়েছে নবান্নও৷ আপাতত ১ সেপ্টেম্বর ঐচ্ছিক বিষয় উর্দুর পরীক্ষার দিন ধার্য হয়েছে৷

----
--