মধ্যমগ্রামে এসি লোকাল ট্রেন! কী বলছে রেল

সৌমেন শীল, কলকাতা: আরব সাগরের তীরে মুম্বইতে চলে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত লোকাল ট্রেন। গঙ্গাপারের শহর কলকাতাতেও চলতে শুরু করছে ওই ধরনের ট্রেন। মধ্যমগ্রাম থেকে চালু হওয়া সেই এসি লোকাল ট্রেন যাবে শিয়ালদহ পর্যন্ত। মাত্র ১৫ মিনিটের ব্যবধানেই অতিক্রম করা যাবে প্রায় ১৭ কিলোমিটার রেলপথ।

আরও পড়ুন- বিজেপি শাসিত রাজ্যে জিনস-টিশার্টে জারি নিষেধাজ্ঞা

বুধবার দুপুরের দিক থেকে এমনই তথ্য সম্বলিত তিনটি ছবি ভাইরাল হতে শুরু করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি সমর্থকদের একটি ফেসবুক পেজে আপলোড করা হয়েছে ছবিগুলি। ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “পশ্চিমবঙ্গকে মোদীজির উপহার….। মধ্যমগ্রাম থেকে শিয়ালদহ পর্যন্ত চালু হল লোকাল AC ট্রেন। মধ্যমগ্রাম থেকে মাত্র ১৫ মিনিটেই পৌঁছে যাবে শিয়ালদহ…” একই সঙ্গে আরও লেখা হয়েছে, “হ্যাঁ এটাই #আচ্ছে_দিন”।

- Advertisement -

খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ছড়িয়ে পড়তে থাকে সেই ছবিগুলি। একদম নতুন ঝকঝকে ট্রেন। দরজা-জানলা বন্ধ। কামরার গায়ে লেখা ইআর অর্থাৎ ইস্টার্ন রেলওয়ে বা পূর্ব রেল। ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই ৫০০ জনেরও বেশি অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার হয় ওয়েস্ট বেঙ্গল বিজেপি সাপোর্টারস নামক ফেসবুক পেজ থেকে পোস্ট করা ছবিগুলি।

খুব স্বাভাবিকভাবেই কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনস্থ সংস্থা রেলের এই ধরনের উদ্যোগে গর্বিত বঙ্গ বিজেপি-র কর্মীরা। যার প্রভাব পাওয়া যায় ওই পোস্টের কমেন্টে। আগে থেকে কোনও প্রচার বা উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ছাড়াই এসি লোকাল ট্রেন চালু করার জন্য কেন্দ্রের মোদী সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করতে থাকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। একই সঙ্গে যাত্রীদের সৌজন্যে ঝকেঝকে এসি লোকাল ট্রেন নোংরা হয়ে যেতে পারে। এমন আশংকাও প্রকাশ করেছেন অনেকে।

অনেকে অবশ্য কমেন্টের মধ্যে জানিয়ে দিয়েছেন যে এই ট্রেনগুলি শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত নয়। এই সকল রেক অল্টারনেটিং কারেন্ট-র মাধ্যমে চলে। বিশেষ ভেন্টিলেশনের ব্যবস্থা থাকায় খুব ভালো বাতাস খেলে। এর বেশি আর কিছুই নয়।

 

ফেসবুক পোস্ট

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই এসি লোকাল ট্রেন নিয়ে যতই আলোচনা চলুক না কেন। রেল কর্তৃপক্ষ অবশ্য বলছে অন্য কথা। মধ্যমগ্রাম স্টেশন কর্তৃপক্ষ Kolkata24x7-কে বলেছে, “এসি লোকাল ট্রেন বলে কিছু নেই। তেমন কিছু চালু হওয়ার কোনও সম্ভাবনাও নেই।” তাহলে সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ছবিগুলো ঘুরছে? বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের ফেসবুক পেজ থেকে সেই ছবি শেয়ার করা হয়েছে। রাজনৈতিক দলের নাম শুনে নিজের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মধ্যমগ্রাম স্টেশনের এক কর্মী বললেন, “বুধবার বিকেলে একটি নতুন রেক কারশেড থেকে এসেছিল। স্থানীয় লোকজন সেই ট্রেন দেখে ভিড় করেছিল। অনেকে ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় দিয়েছে।” সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া রেকগুলি একদম সাধারণ লোকাল ট্রেনেরই। অতিরিক্ত কোনও বিশেষত্ব সেখানে নেই বলে জানিয়েছেন ওই কর্মী।

কাছ থেকে দেখলে বোঝা যায় এটি এসি নয়

শীততাপ নিয়ন্ত্রিত লোকাল ট্রেনের খবর শুনে রীতিমতো অবাক রেলের জনসংযোগ আধিকারিকেরা। রেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, “শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত লোকাল ট্রেন চালু হলে অনেক আগে থেকেই সকলকে তা জানানো হবে। আচমকা কিছুই করা হবে না।”

বঙ্গ বিজেপি সমর্থকেরা রেলের মাধ্যমে আচ্ছে দিন এসে গিয়েছে বলে দাবি করলেও তা যে আপাতত অনেক দূরে তা বলেই বাহুল্য।

Advertisement
---