স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর স্বঘোষিত মেয়ের প্রসঙ্গে মুখ খুললেন মুকুল রায়৷ কৌশলে আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷ ‘কাজের সময় কাজি, কাজ ফুরলেই বাজি’ আপ্তবাক্য আউড়ে বললেন, ‘‘যতদিন প্রয়োজন ছিল, ততদিন ভারতীকে নিজের ঘনিষ্ঠবৃত্তে রেখেছিলেন তৃণমূল নেত্রী৷ কাজ ফুরোতেই ভারতী বিরাগভাজন হয়েছেন৷’’

পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে তোলাবাজি ও প্রতারণার অভিযোগে তদন্ত শুরু করেছে সিআইডি৷ সেই প্রসঙ্গে টেনেই তৃণমূলের প্রাক্তন চাণক্য প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘ভারতী ঘোষ যখন পদে বহাল ছিলেন, তখন কেন তাঁর ‘দুর্নীতি’ নিয়ে রাজ্য সরকার ব্যবস্থা নেয়নি?’’ সরাসরি অভিযোগ করেছেন, ‘‘রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুললেই মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷’’

Advertisement

অভিযোগ করেছেন, ‘‘পায়ের তলার মাটি সরে যাচ্ছে বুঝতে পেরেই গণতন্ত্রর গলা টিপে ক্ষমতা ধরে রাখতে চাইছে তৃণমূল৷’’ দাবি করেছেন, ‘‘তৃণমূলের এমন অনেককে জানি, যাঁরা প্রতিনিয়ত বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছেন৷’’ বলেছেন, ‘‘অপেক্ষা করুন৷ সময় এলেই তাঁরা বিজেপিতে যোগদান করবেন৷’’

এরপরই ভারতী প্রসঙ্গ উত্থাপন করে ‘এই রাজ্যে কোনও গণতন্ত্র নেই। প্রতিবাদ করলেই তার বিরুদ্ধে প্রতিহিংসা মূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’’ ক’দিন আগেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, ‘‘ভারতী ঘোষ বিজেপিতে এলে তাঁকে স্বাগত৷’’ এমন জল্পনাও ছড়িয়েছে যে ভারতীদেবীকে আইনি সহায়তা দিচ্ছে গেরুয়া শিবির৷ যদিও এদিন এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি মুকুল রায়৷

----
--