কোয়ার্টার ফাইনালে আলো ছড়াবেন লুকাকু না নেইমার

কাজান: ১৬ বছর পর বিশ্বকাপ মঞ্চে ফের মুখোমুখি ব্রাজিল-বেলজিয়াম৷ বিশ্বকাপে শেষ সাক্ষাতে প্রি-কোয়ার্টারের লড়াইয়ে বেলিজিয়ামকে হারিয়েছিল ব্রাজিল৷ শুক্রবারের লড়াই বেলজিয়ামের কাছে তাই বদলার৷ দুই দলেই রয়েছে দুই তারকা ফরোয়ার্ড৷ কাজান এরিনার লড়াই্ তাই যতটা ব্রাজিল বনাম বেলজিয়াম, ততটাই নেইমার বনাম লুকাকুর৷

ব্রাজিলীও ফরোয়ার্ড নেইমার যে এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম প্রতিভাবান ফুটবলার সে বিষয়ে সন্দেহের অবকাশ নেই৷ কিন্তু বিশ্বকাপের আগে পায়ে ভয়ঙ্কর চোটের জন্য অনেকদিন ফুটবল থেকে দূরে ছিলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা ফরোয়ার্ড৷ যার প্রভাব পড়েছে নেইমারের বিশ্বকাপ সফরে৷ বিশ্বকাপের চার ম্যাচ খেলা হয়ে গিয়েছে৷ কিন্তু এখনও নেইমারকে সেভাবে পাওয়া যায়নি৷ গোল করার জন্য নয় বরং একাধিকবার বিপক্ষের ট্যাকেলের সামনে পড়ে যাওয়ার জন্য খবরে এসেছেন এনটেন৷ চার ম্যাচে নেইমারের গোল সংখ্যা দুই৷

অন্যদিকে নেইমারের থেকে এক ম্যাচ কম খেলেও ইতিমধ্যে চারটি গোল করে ফেলেছেন রোমেলু লুকাকু৷ বেলজিয়ামের এই তারকা ফরোয়ার্ড পুতিনের দেশে বিশ্বকাপে গোল্ডেন বুটের দৌডে়ও রয়েছেন৷ রাশিয়া বিশ্বকাপে করা গোলের সংখ্যায় তাঁর আগে রয়েছেন একমাত্র ইংল্যান্ড অধিনায়ক হ্যারি কেন (৬)৷

- Advertisement -

গোল সংখ্যার বিচারে এগিয়ে থাকলেও আক্রমণে কিন্তু লুকাকুর থেকে এগিয়ে রয়েছেন নেইমার৷ বিশ্বকাপের চার ম্যাচে মোট ২৪ বার গোল লক্ষ্য করে শট নিয়েছেন ব্রাজিলের তারকা ফুটবলার৷ যার মধ্যে ১২টি শট ছিল প্রতিপক্ষের তেকাঠিতে৷ উলটো দিকে বিশ্বকাপে এখনও অবধি ১১টি শটই নিতে সক্ষম হয়েছেন লুকাকু৷ যার মধ্যে তেকাটিতে ছিল মাত্র ৫টি শট৷ তাই গোলের পরিসংখ্যান দিয়ে এটা বলা মুশকিল শুক্রবার দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনাল কে আলো ছড়াবেন!

বিশ্বকাপের ইতিহাসে একবারই সাক্ষাত হয়েছিল ব্রাজিল-বেলজিয়ামের৷ ২০০২ বিশ্বকাপে প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ে রেড ডেভিলসদের ২-০ হারিয়ে শেষ আটে পৌঁছেছিল সেলেকাওরা৷ প্রথমার্ধ গোল শূন্য থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে রিভাল্ডো ও রোনাল্ডোর গোলে ম্যাচ জিতেছিল ব্রাজিল৷

Advertisement
-----