উত্তর থেকে দক্ষিণ, চলছে মরা মুরগির খোঁজ

নিজস্ব প্রতিনিধি: রাজ্য জুড়ে মুরগি অভিযানে নেমে পড়েছে প্রশাসন। কলকাতায় পুরসভার মুরগি ‘শোধন’ অভিযানের পর অভিযানে নেমেছে হাওড়া পুরসভাও। পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের কোচবিহারেও অভিযানে নেমেছেন পুরকর্মীরা। বাজার থেকে হোটেল, রেস্তোরাঁ প্রত্যেক জায়গাতেই চলছে মরা মুরগির তল্লাশি। চলছে নমুনা সংগ্রহের কাজও।

মরা মুরগি তল্লাশিতে নেমে ইতিমধ্যেই কয়েকটি দোকানে কেটে রাখা মুরগির মাংসের সন্ধানও পান হাওড়া পুরসভার কর্মীরা। বৃহস্পতিবার হাওড়া পুরনিগমের স্বাস্থ্য দফতরের মেয়র পারিষদের নেতৃত্বে হাওড়ার বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালানো হয়।

বেশ কয়েকটি দোকান থেকে নমুনা সংগ্রহের পাশাপাশি ওই দলটি কয়েকটি হোটেল ও রেঁস্তোরায় হানা দিয়ে খাবারে ব্যবহারের জন্যে রাখা রঙের নমুনাও সংগ্রহ করেন। এইদিন ভারপ্রাপ্ত মেয়র পারিষদ ভাস্কর ভট্টাচার্য বলেন, “বেশ কিছু দোকান ও হোটেল থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।হাওড়া পুরনিগম এলাকায় বিশেষ কোন সমস্যা নেই।”

- Advertisement -

এদিকে কোচবিহার শহরের হোটেল, রেস্তোরাঁগুলিতে সঠিক মানের মুরগির মাংস দেওয়া হচ্ছে কিনা সেই অভিযানে নেমেও সন্দেহজনক কিছু পাননি পুরকর্মীরা। তবে আগামী দিনে এই অভিযান চলানো হবে বলে জানানো হয়েছে পুরসভার পক্ষ থেকে।

সম্প্রতি কলকাতার মরা মুরগী বিক্রির চক্র সামনে এসেছে। যেখানে উঠছে এসেছে ফর্মালিন দিয়ে মৃত মুরগীর মাংস সংরক্ষিত করে তা বিক্রির চক্র। আর এই ঘটনার পর নড়েচরে বসেছে উত্তরবঙ্গ থেকে দক্ষিণবঙ্গের পুরসভা এলাকার কর্মীরা। এদিন বাজারে গিয়ে মরা মুরগী বিক্রি করা হচ্ছে কিনা তাও দেখা হয়। পৌরসভার পক্ষ থেকে আধিকারিক বিশ্বজিত রায় বলেন, “প্রথম দিনে কোনও সন্দেহজনক কিছু পাওয়া যায়নি, প্রতিদিন এই অভিযান চলবে।” সঙ্গে তিনি এও বলেন, “শহরের বিভিন্ন স্থানে ব্যাঙের ছাতার মত গজিয়ে ওঠা বিরিয়ানির দোকান গুলিতেও আগামীতে খাদ্যের মান পরিক্ষা করা হবে।”

Advertisement ---
---
-----