‘তাজমহল তুমি কার?’

নয়াদিল্লি: তাজমহল জট কাটছেই না৷ নির্বিকার প্রশাসন৷ রক্ষণাবেক্ষণ প্রশ্নে তাই উত্তর প্রদেশ সরকারের কাছেই সমাধান চাইল সুপ্রিম কোর্ট৷

আদালতের প্রশ্ন, ‘ তাজমহল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব ঠিক কার?’ একটি মামলার পর্যবেক্ষণে সুপ্রিম কোর্ট জানাল, তাজমহল রক্ষা করতে সরকারের পদক্ষেপ ঠিক কী? তাজমহল নিয়ে ডান হাত জনতে পারছে না বাম হাত কী করছে, তাজ ট্র্যাপেজিয়াম জোন (TTZ) তাজমহল নিয়ে ভাবিত নয়৷ যা দুর্ভাগ্যজনক৷

তাজমহল নিয়ে উত্তর প্রদেশ সরকারের উপর রীতিমত ক্ষোভ উগরে দেয় সুপ্রিম কোর্ট৷ তাজমহল নিয়ে গা ছাড়া মনোভাব কেন? সরকারকে ভৎসর্ন করে শীর্ষ আদালতের প্রশ্ন-‘দায়িত্ব এড়াতে প্রথমে পরিবেশ মন্ত্রক, তারপর এএসআই, তারপর উত্তরপ্রদেশ সরকার মামলা করেছে, এটা কেন হচ্ছে?’ পর্যবেক্ষণে আদালত সাফ জানায়, কাউকে না কাউকে তাজমহলের দায়িত্ব নিতেই হবে৷ ইউনেস্কোর হেরিটেজ তালিকায় তাজমহল৷ সেই কারণেই উদ্যোগ নেওয়া প্রয়োজন৷

- Advertisement -

TTZ -র সদস্য সংখ্যা কমছে, উত্তর প্রদেশ সরকারকে আগে থেকেই তা জানানো হয়৷ ২০-২৫ কর্মী কম রয়েছে তাজ ট্র্যাপেজিয়াম জোনে, আর সেই কারণেই তাজমহলের রক্ষণাবেক্ষণের উপর নজর দেওয়া হয়নি৷ ২৪ জুলাই সুপ্রিম কোর্টের কাছে তাজমহল নিয়ে রিপোর্ট জমা দেয় উত্তর প্রদেশ সরকার৷

রিপোর্টের ড্রাফ্টে লেখা, তাজমহল রক্ষণাবেক্ষনের জন্য এলাকা প্লাস্টিকমুক্ত করেছে সরকার৷ প্লাস্টিকের বোতল,বাক্সের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে৷ শুধু তাজমহল এলাকা নয় গোটা আগ্রা প্লাস্টিকমুক্ত হয়েছে৷ যমুনার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে যানজটমুক্ত করতে সরকার স্বচেষ্ট, ফুটপাতও চওড়া করা হচ্ছে৷ জঙ্গল এলাকা সংস্কারের কাজ চলছে৷

সরকারের দেওয়া রিপোর্টে সন্তুষ্ট নয় সুপ্রিম কোর্ট৷ তাজমহলের শ্বেত সৌন্দর্য্য বজায় রাখতে আরও তৎপরতার প্রয়োজন৷ সরকারের পেশ করা রিপোর্ট এএসআইয়ের সঙ্গে আলোচনা না করেই জমা পড়ছে৷ যা নিয়ম বহির্ভূত৷তাজমহলের রক্ষণাবেক্ষনের উপর নির্ভর করছে হেরিটেজ তালিকায় সৌধের টিকে থাকা৷ ইউনেস্কো তাজমহলকে তালিকা থেকে সরালে তা দেশেরই অসম্মান, যোগী সরকারকে জানাল সুপ্রিম কোর্ট৷

Advertisement
-----