মনুয়ার মতোই প্রেমিকের সাহায্যে স্বামীকে খুনে অভিযুক্ত শ্রাবণী

প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: প্রেমিকের সঙ্গে মিলে স্বামীকে খুন করার অভিযোগ উঠল স্ত্রীর বিরুদ্ধে৷ মৃতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে স্ত্রীকে গ্রেফতারও করেছে পুলিশ৷

ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়া থানা এলাকায়৷ সেখানকার পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের নাম শ্রাবণী মাল৷ তবে শ্রাবণীর প্রেমিক বাপির খোঁজ পাইনি পুলিশ৷ তার সন্ধানে তল্লাশি চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে৷

আরও পড়ুন: ফের ভুয়ো চিকিৎসকের হদিশ মিলল কলকাতায়

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়ায় সোমনাথ মাল ওরফে রাজুর মৃতদেহ উদ্ধার হয়৷ তার আগে দশদিন ধরে তিনি নিখোঁজ ছিলেন৷ তাঁর নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার অভিযোগও দায়ের হয়েছিল পাঁশকুড়া থানায়৷ ওই অভিযোগ দায়ের করেছিল শ্রাবণী৷ অভিযোগ দায়ের করার সময় তার সঙ্গে ছিল বাপি৷ সে রাজুর বন্ধু হিসেবে পরিচিত ছিল৷

রাজুর বাবা লক্ষ্মণচন্দ্র মালের অভিযোগ, বাপির সঙ্গে তাঁর বউমা বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিল৷ প্রথমে বিষয়টি গোপন ছিল৷ পরে জানাজানি হয়৷ তখন থেকে এ নিয়ে ছেলে ও বউমার মধ্যে অশান্তি শুরু হয়৷ রাজু বারবার শ্রাবণীকে ওই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসার জন্য চাপ দিচ্ছিল৷ কিন্তু শ্রাবণী তাতে রাজি ছিল না৷ এই নিয়েই দু’জনের মধ্যে অশান্তি শুরু হয়৷ লক্ষ্মণবাবুর দাবি, এই কারণেই বাপি ও শ্রাবণী দু’জনে মিলে তাঁর ছেলেকে খুন করেছে৷

আরও পড়ুন: নকল সোনার মূর্তি দেখিয়ে প্রতারণার অভিযোগে ধৃত এক

তিনি পাঁশকুড়া থানায় ছেলেকে খুনের অভিযোগ দায়ের করেছেন৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে শ্রাবণীকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ রাজুর মৃতদেহ উদ্ধারের পর থেকে বাপি নিখোঁজ৷ পুলিশ এখন তার খোঁজ করছে৷

Advertisement
---