স্ত্রী’র বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক, অপমানে আত্মঘাতী শিক্ষক

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: শিক্ষকের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য বীরভূমের রামপুরহাট থানার আয়াস গ্রামে৷ স্ত্রীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি ইসরাফিল পটুয়া (৩৬)৷ তার জেরেই আত্মঘাতী হয়েছেন শিক্ষক৷ উদ্ধার হওয়া সুইসাইড নোট থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অনুমান পুলিশের৷ চারজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ৷

আত্মঘাতী শিক্ষক ইসরাফিল পটুয়া’র বাড়ির লোকের অভিযোগ, বহুদিন ধরে পারিবারিক অশান্তির মধ্যে ছিলেন তিনি৷ রামপুরহাটের লম্বদরপুর জুনিয়ার হাইস্কুলে শিক্ষকতা করতেন ইসরাফুল৷ গত ৫ই সেপ্টম্বর স্কুলে শিক্ষক দিবসের অনুষ্ঠান চলাকালীন ইসরাফুলের স্ত্রী, শ্বশুর, শাশুড়ি ও শালারা সেখানে গিয়ে তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বলে অভিযোগ৷

আরও পড়ুন: ১৯ বছরের ধর্ষককে ফাঁসির সাজা শোনাল আদালত

- Advertisement -

মৃতের পরিবারের দাবি, ছাত্র ও সহকর্মীদের সামনে সেই অপমান সহ্য করতে পারেননি লম্বদরপুর জুনিয়ার হাইস্কুলের শিক্ষক ইসরাফিল পটুয়া৷ বৃহস্পতিবার রাতে ঘর থেকে তাঁর অচৈতন্য দেহ উদ্ধার করেন পরিবারের সদস্যরা৷ শুক্রবার বর্ধমান মেডিক্যালে মৃত্যু হয় ওই শিক্ষকের৷

আরও পড়ুন: হাতি মৃত্যু রুখতে মাত্র ২০০০ টাকাতেই ম্যাজিক রেলের

মৃত শিক্ষকের ডাইরি থেকে সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়েছে৷ সেখান থেকেই পুলিশ জানতে পারে, মৃত ইসরাফিল পটুয়ার স্ত্রীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল৷ তার বিরোধীতা করাতেই স্বামীর উপর অত্যাচার করতেন শিক্ষকের স্ত্রী৷ সেই অপমানেই ইসরাফিল বিষ পান করে আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান৷

ঘটনার পর থেকে পলাতক মৃতের স্ত্রী৷ রামপুরহাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মৃত শিক্ষকের ভাই৷ চারজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ৷ খোঁজ শুরু হয়েছে ইসরাফিল পটুয়ার স্ত্রীর৷

Advertisement
---