মুম্বই: দক্ষিণ আফ্রিকার পর ইংল্যান্ড। বিদেশের মাটিতে টানা দুটি টেস্ট সিরিজে হারের ফলে কোহলিদের সোনার সংসার ফের টালমাটাল। এরই মধ্যে চলতি ইংল্যান্ড সিরিজে কোহলিদের হতশ্রী পারফরম্যান্স খতিয়ে দেখা হবে বলে জানালেন কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের চেয়ারম্যান বিনোদ রাই। রবিবার তিনি জানান, ‘দলের ম্যানেজার রিপোর্ট করার পরই গোটা দলের পারফরম্যান্স পর্যালোচনা করা হবে।’

দক্ষিণ আফ্রিকার পর ইংল্যান্ডের মাটিতেও ল্যাজেগোবরে হওয়ায় ভারতীয় দল নিয়ে উঠছে একাধিক প্রশ্ন। সিরিজে একাধিক টেস্টে এগিয়ে থেকেও অ্যাডভান্টেজ হাতছাড়া করেছে ভারত। আর ভারতের এই করুন পরিণতির পিছনে মূলত দায়ী ব্যাটসম্যানদের ধারাবাহিকতার চূড়ান্ত অভাব।

Advertisement

বোলাররা সিরিজজুড়ে দুরন্ত পারফরম্যান্স করলেও ইংরেজ টেল এন্ডারদের প্যাভিলিয়নে পাঠাতে কালঘাম ছুটেছে তাঁদেরও। সবমিলিয়ে ভারতীয় দলের ব্যর্থতার সুযোগ নিয়ে বারংবার ম্যাচে ফিরে এসেছে ইংল্যান্ড এবং বাজিমাৎ করে গিয়েছে সিরিজে।

এজবাস্টনে প্রথম টেস্টে মাত্র ১৯৪ রান তাড়া করতে গিয়ে মুখ থুবড়ে পড়ে টিম ইন্ডিয়া। এরপর লর্ডসে দ্বিতীয় টেস্টে এক ইনিংস ও ১৫৯ রানে বিরাট হারের সাক্ষী থাকেন কোহলিরা। যদিও ২০৩ রানে ট্রেন্ট ব্রিজ টেস্ট জিতে সিরিজে ফিরে আসে ভারত।

কিন্তু সাউদাম্পটন টেস্ট হারের ফলে শেষ হয়ে যায় টিম ইন্ডিয়ার সিরিজ জয়ের স্বপ্ন। উল্টে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ হারতে হয় কোহলিদের। চতুর্থ টেস্টের প্রথম ইনিংসে এগিয়ে গিয়েও শেষরক্ষা হয়নি। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড টেল এন্ডার ব্যাটসম্যানদের সামনে বুমরা-সামিদের ব্যর্থতা, সেই সঙ্গে চতুর্থ ইনিংসে কদর্য ব্যাটিং সিরিজ হার নিশ্চিত করে কোহলিদের।

নিয়মরক্ষার ম্যাচে ওভালে এই মুহূর্তে ব্যাটিং করছে ভারতীয় দল। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ৩৩২ রানের জবাবে টপ অর্ডার খুঁইয়ে বিপাকে কোহলি ব্রিগেড। বড়সড় অঘটন না ঘটলে শেষ টেস্টেও কোহলিরা বিশেষ কিছু করে উঠতে পারবেন বলে মনে করছে না বিশেষজ্ঞ মহল। সবমিলিয়ে কোহলিদের টেস্ট সিরিজ হারের খুঁটিনাটি যে আতস কাঁচের তলায় আসবে তা একপ্রকার নিশ্চিত সিওএ চেয়ারম্যানের কথায়। অপেক্ষা কেবল দলের ম্যানেজারের রিপোর্টের।

----
--