উইন্টার মেন্যুর TOP 5

ঘুম ভাঙা শীতসকালে জড়িয়ে থাকে নরম আলস্য। ঘেমো অস্বস্তি নেই, রাজপথের জল পেরিয়ে অফিস যাওয়াও নেই। খেয়ে সুখ, খাইয়েও সুখ। ব্রেকর্ফাস্ট টেবিল হোক বা সান্ধ্য চাযের ঠেক পেটপুজো হোক জমিয়ে। কিন্তু ক্যালেন্ডারের বছর শেষের উষ্ণতায় মেন্যুলিস্টে টপ ফাইভ কারা?

১) গাজোয়ারির গাজোর
পাড়ার মোড়ে কানুর দোকান হোক বা লেক মার্কেটের বাবুয়ানি, শীতের আদরে গাজোর নিয়ে গা জোয়ারি কোথাও নেই। যে কোনও বাজারে ‘মোদী’র রঙে সেজে শুয়ে রয়েছে সার দিয়ে। স্যুপ হোক বা স্টু, চাউমিন বা বাঙালি তরকারি গাজর জায়গা করে নেয় নিজস্ব নিয়মে। আর শীতকালীন অধিবেশনে স্যালাডের প্লেটে তো কমন ফ্যাক্টর। ভিটামিন ‘এ’-এর গুণধারী গাজর শীতের দিনে আপনার ত্বককে রাখবে তরতাজা।

২) চায়ে পে চর্চা
“এক কাপ চায়ে আমি..” কাকে চান? অপশন আপনার। তবে চা যাদের জীবনসঙ্গী তাদের জন্য সুখবর। আর যাদের চা না-পসন্দ তারাও এই শীতে সই পাতান গ্রিন-টিয়ের সঙ্গে। এর প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আপনাকে রাখবে সুস্থ ও সুন্দর। এর অ্যান্টিভাইরাল ও অ্যন্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ ভাইরাসজনিত যে কোনও উপসর্গ থেকে আপনাকে প্রাথমিক সুরক্ষা দেবে। দিনে তিন থেকে পাঁচ কাপ গ্রিন টি খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

- Advertisement -

৩) ছাতা ধরো হে
মাশরুম। যার ডাকনাম ব্যাঙের ছাতা। শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে যার জুরি মেলা ভার। ঝালে-ঝোলে-অম্বলের বাঙালি মাশরুমকেও ভালবেসে জায়গা দিয়েছে হেঁশেলে। এই মরসুমে সাদা মাশরুম আপনার প্লেটে জায়গা পেলে উইন্টার ভাইরাসরা পালানোর পথ পাবে না।

৪) রসুনে হাসুন
হালকা ঠান্ডা লেগেছে। কপালে গাল ঠেকিয়ে ঠাম্মার মনে হল গা-গরম। ব্যাস চালু হয়ে গেল রসুনের ঘরোয়া টোটকা। এ হেন অভিজ্ঞতা আমাদের সকলেরই কম-বেশি রয়েছে। রক্তে প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে রসুনের উপকারিতাকে মান্যতা দিয়েছেন গবেষকরাও। তাই শীতের মেন্যুতে যোগ করুন রসুনও।

৫) ‘ও মধু…’
আয়না বলছে গত শীতে কেনা জামাটা টাইট হচ্ছে। অমনি কপালে চিন্তার  ভাঁজ। নিয়ম করে শুরু হল সকালে খালি পেটে উষ্ণ লেবুর জলে মধু সহযোগে মেদ ঝরানোর ট্রায়াল। শীতসকালে হাইপ্রোটিন মধুর প্রেমে অনেকেই মজেছেন। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতি রাতে এক কাপ গরম দুধে এক চামচ মধু মিশিয়ে খেলে শীত কাটবে আনন্দে।

Advertisement ---
---
-----