চাকরি না পেয়ে আর কত অতনুকে প্রাণ দিতে হবে? ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়

কলকাতা: বেকারত্বের জ্বালায় সোনারপুরের মেধাবী ছাত্র অতনু মিস্ত্রির মৃত্যুর প্রতিবাদে ঝড় উঠল সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ অতনুর পরিবারের পাশে থাকার বার্তা নিয়ে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক পোস্ট করেছেন তাঁর বন্ধুরা৷ বেকারত্বের জ্বালায় মেধাবী ছাত্রের আত্মহত্যার ঘটনায় দুঃখ ও প্রতিবাদ জানিয়ে ফেসবুকে নিজেদের প্রোফাইল ছবি বদলে দেওয়ারও আর্জি জানানো হয়েছে৷ অতনুর স্মরণে আগামী ১৬ আগস্ট একটি শোক মিছিলেরও ডাক দিয়েছে সল্টলেক করুণাময়ীয় এএসসি দফতরের সামনে৷

চাকরি প্রার্থীদের একাধিক ফেসবুক গ্রুপে আর্জি জানানো হয়েছে, ‘‘সবাইকে আমার তরফ থেকে অনুরোধ, এই কিছুদিনের জন্য আমরা সবাই নিজেদের প্রোফাইল পিকচারগুলি পরিবর্তন করে অতনু মিস্ত্রি’র ছবি করতে পারি না! হয়ত এটার মধ্যে দিয়ে অতনু মিস্ত্রি এবং তাঁর পরিবারের প্রতি কিছুটা হলেও সমবেদনা জানাতে পারি৷ ভুল কিছু বললে মাফ করে দেবেন৷ কারণ আজ মন ভালো নেই৷’’

দীর্ঘ দিন ধরে চাকরির পরীক্ষা দিয়েও ব্যর্থ হন মেধাবী স্নাতকোত্তর, বিএড পাশ করা পড়ুয়া অতনু মিস্ত্রি৷ অভিযোগ, বেসরকারি চাকরির জন্য ইন্টারভিউ দিতে গিয়ে ঘর পরিষ্কার করার অফার পান অতনু৷ অফার ফিরিয়ে দিয়ে হতাশায় আত্মঘাতী হন যুবক৷  বুধবার সোনারপুর থানার নতুনপল্লি এলাকার এই ঘটনায় রীতিমতো সারা ফেলে দেয় গোটা রাজ্যে৷ বেকারত্বের জ্বালায় এভাবে যুবকের আত্মহত্যার ঘটনায় নানা মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে৷ চাকরি না পেয়ে হতাশায় এভাবে আর কত অতনুকে প্রাণ দিতে হবে? টাকার বদলে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার রীতি কবে বন্ধ হবে? চাকরি দেওয়ার নামে সরকারের গাছাড়া মনোভাব আর কবে কাটবে? প্রশ্ন তুলছেন এরাজ্যের লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক৷

- Advertisement -

 

Advertisement
---