চারমিনারে ড্রোন উড়িয়ে গ্রেফতার যুবতী

হায়দরাবাদ: চারমিনারের মাথায় ড্রোন উড়িয়ে গ্রেফতার হলেন এক যুবতী৷ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে ড্রোন ক্যামেরা, রিমোট কনট্রোল৷ শুরু হয়েছে তদন্ত৷ জঙ্গি হামলার আগাম সতর্কতা হিসাবে ইতিমধ্যেই ঐতিহাসিক চারমিনারে ড্রোন ওড়ানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পুলিশ৷

এরইমধ্যে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বছর ২৬-এর যুবতীকে ড্রোন ওড়াতে দেখা যায় হায়দরাবাদের চারমিনার চত্বরে৷ সঙ্গে সঙ্গে গ্রেফতার করা হয় ওই যুবতীকে৷ ধৃতের নাম সুপর্ণা নাথ৷ চারমিনার পুলিশ স্টেশনের হাউস অফিসার জানান, সুপর্ণা নাথ নামে ২৬ বছরের এক মহিলাকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ তাঁর বিরুদ্ধে ৭০ (বি) ধারায় জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ পাশাপাশি সরকারি আদেশ অমান্য করার জন্য ভারতীয় দন্ডবিধির ১৮৮ ধারাতেও মামলা হয়েছে ধৃতের বিরুদ্ধে৷

আরও পড়ুন: অপহৃত পুলিশ কনস্টেবলের গুলিবিদ্ধ দেহ উদ্ধার

- Advertisement -

গত এপ্রিল থেকেই ঐতিহ্যমণ্ডিত চারমিনার চত্বরে ড্রোন ওড়ানো নিষিদ্ধ৷ গোয়েন্দা সংস্থার একটি রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই এই সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন৷ সেই রিপোর্ট জানিয়েছিল, চারমিনারে জঙ্গি হামলার সম্ভাবনা রয়েছে৷ এরপরই হায়দরাবাদের পুলিশ কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, এই চত্বরে কোনওরকম তথ্যপ্রযুক্তি দ্বারা চালিত এরিয়াল ভেহিক্যাল বা এরিয়াল সার্ভে করা যাবে না৷

আর একান্তই তা করতে হলে স্থানীয় থানা ও প্রশাসনের যথাযথ অনুমতি, ছাড়পত্র লাগবে৷ কেউ যদি এই নির্দেশ অমান্য করে সেক্ষেত্রে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভারতীয় দন্ডবিধির ১৮৮ ধারায় মামলা দায়ের করা হবে৷ বৃহস্পতিবারের ঘটনা তেমনই একটা মামলার অধীনে পড়ে গিয়েছে৷ সুপর্ণাকে জেরা করে পুলিশ আইন ভাঙার প্রকৃত কারণ জানতে চায়৷

আরও পড়ুন: কাঠুয়া ধর্ষণকাণ্ড: অভিযুক্তের নাবালক হওয়ার চেষ্টা ব্যার্থ

Advertisement ---
---
-----