প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সংস্থার হয়ে পাওনা টাকা আদায় করতে গিয়ে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হল দুই সেলসম্যানকে৷ অভিযোগ, তাদের পাওনা টাকা দেওয়ার বদলে খাওয়ানো হল বিষ৷

শুক্রবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটে নিউ আলিপুর থানা এলাকায়৷ ওই দুই সেলসম্যানের মধ্যে একজন গুরুতর অসুস্থ৷ তার নাম অমিত চক্রবর্তী৷ তিনি আপাতত চিকিৎসাধীন৷ দ্বিতীয়জন সোমনাথ মণ্ডল৷

আরও পড়ুন: চিদাম্বরমের রাফাল নিশানায় মোদী

তাঁরই উদ্যোগে এই ঘটনা ঘিরে হইচই পড়ে৷ তিনিই পুলিশকে খবর দেন৷ সংস্থায় খবর দেন৷ তার পর ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ৷ অভিযুক্ত গৃহকর্ত্রী মধুমন্তী সাহাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷

গত ২৭শে জুলাই বহুজাতিক চিমনি বিক্রয়কারী সংস্থার দু’টি মুল্যবান পণ্য কেনেন নিউ আলিপুরের ই-ব্লকের গৃহবধূ মধুমন্তী সাহা ৷ চেকের মাধ্যমে চিমনির মূল্য ৪০ হাজার টাকা মিটিয়ে দিলেও ব্যাঙ্ক কোনও কারণে সেই চেক ফিরিয়ে দেয়৷ এরপর সংস্থার পক্ষ থেকে মধুমন্তীকে বিষয়টি জানান হয়৷ তখন তিনি চিমনির মূল্য নগদে মিটিয়ে দেওয়ার কথা জানান ওই সংস্থাকে৷

আরও পড়ুন: ৮৯ বছরের পুরনো রেকর্ড ভাঙতে পারেন রোনাল্ডো

সেই মতো শুক্রবার দুপুরে ওই সংস্থার দুই কর্মী অমিত চক্রবর্তী ও সোমনাথ মণ্ডল টাকা নিতে মধুমন্তীর বাড়িতে যান ৷ অভিযোগ, টাকা দেওয়ার নামে এই দুই কর্মীকে দীর্ঘক্ষণ বসিয়ে রাখা হয়৷ এরপর তাদের ঠান্ডা পানীয় খেতে দেওয়া হয়৷ ওই পানীয় পান করার পর অমিত অসুস্থ অচৈতন্য হয়ে পড়ে বলে অভিযোগ৷

সহকর্মীর এই অবস্থা দেখে সোমনাথ নিজের ফোন বের করেন বিষয়টি অফিসে জানানোর উদ্দেশ্যে৷ তাঁকে ফোন বের করতে দেখে মধুমন্তী তাঁর উপর বাড়ির কয়েকটি কুকুর ছেড়ে দেন এবং ফোন কেরে নেন বলে অভিযোগ৷ কোনও ভাবে নিজের প্রাণ বাঁচিয়ে সোমনাথ ঘটনাস্থল থেকে বেরিয়ে নিউ আলিপুর থানায় এসে পৌঁছয়৷ থানায় বসে তাঁর অফিসেও বিষয়টি জানান৷

আরও পড়ুন: পিছিয়ে গেল মোদী বিরোধী জোটের বৈঠক

আরও পড়ুন: আর হিরোগিরি নয়, এবার ‘ভিলেন’র পালা

এরপর নিউ আলিপুর থানার পুলিশের সাহায্যে অচৈতন্য অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়৷ আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ চিমনি বিক্রয়কারী সংস্থার পক্ষ থেকে নিউ আলিপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলে অভিযুক্ত মধুমন্তী সাহাকে গ্রেফতার করা হয়৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন: ভাই মোদীর জন্য রাখী তৈরি করছেন মুসলিম বোনেরা

----
--