মন্দিরের ডরমিটরিতে সিসিটিভি খুঁজে পেলেন মহিলা

হায়দরাবাদ: বিতর্কের কেন্দ্রে অন্ধ্রপ্রদেশের দুর্গা মল্লেশ্বরা স্বামী মন্দির৷ বিজয়ওয়াড়ার এই বিখ্যাত মন্দিরের ডরমিটরিতে গোপনে রাখা সিসিটিভি ক্যামেরা৷ এক মহিলা ভক্ত সেই গোপন ক্যামেরার হদিশ পান৷ প্রথমে মন্দির কর্তৃপক্ষ বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন৷ পরে চাপে পড়ে ক্যামেরা সরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়৷ এই ঘটনায় ভক্তদের মধ্যে বিশেষ করে মহিলা ভক্তদের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি করে৷

মুম্বই মিররে প্রকাশ, মন্দিরে প্রার্থনা শেষে এক মহিলা ভক্ত ডরমিটরিতে ফিরে যান বিশ্রাম করতে৷ তখনই তাঁর চোখে সিসিটিভি ক্যামেরাটি ধরা পড়ে৷ তিনি জানান, ঘরের একটি কোণে সিসিটিভি ক্যামেরা রাখা ছিল৷ বিষয়টি প্রথমে মন্দিরের নিরাপত্তাকর্মীদের নজরে আনেন৷ কিন্তু ওই নিরাপত্তাকর্মী বিষয়টিকে লঘু করে দেখার চেষ্টা করেন৷ তাঁকে বলা হয় ওই ক্যামেরার সঙ্গে সিস্টেমের কোনও সংযোগ নেই৷ তবে নিরাপত্তাকর্মীর এই মন্তব্যে চিড়ে ভেজেনি৷ ওদিকে ততক্ষণে অন্য মহিলা ভক্তরা জড়ো হয়ে প্রতিবাদ জানাতে শুরু করেন৷

প্রথমে মন্দির কর্তৃপক্ষ বিষয়টি ধাপাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন৷ তাদের তরফ থেকে বলা হয় গত কয়েকদিন ধরে ওই ক্যামেরাগুলি কাজ করছে না৷ সেগুলি খারাপ হয়ে গিয়েছে৷ পরে মহিলাদের প্রতিবাদের চাপে মন্দির কমিটির এক সদস্য ঘটনাটি সরেজমিনে খতিয়ে দেখেন৷ তদন্তের পর তিনি গোটা ঘটনাটি নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করেন৷ তিনি আশ্বাস দেন দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ যদিও মন্দির কমিটির একাংশ জানিয়েছে, ডরমিটরিতে মহিলা ভক্তদের স্নান করা বা কাপড় পরিবর্তনের অনুমতি নেই৷ প্রসঙ্গত এর আগে মন্দির কর্তৃপক্ষ বিতর্কের মুখে পড়েছিল৷ এই বছরই মধ্যরাতে মন্দিরে পুজোপাঠের আয়োজন করে সরকারের রোষের মুখে পড়ে মন্দির কর্তৃপক্ষ৷

Advertisement
---
-----