জামাই ষষ্ঠীতে পাতে থাকছে বিশ্বকাপের পতাকা

স্টাফ রিপোর্টার, হুগলি: বাঙালীর তেরো পার্বনের এক পার্বন জামাইষষ্ঠী। আর জামাইষষ্ঠী মানেই গরমের মধ্যে পঞ্চব্যঞ্জনে ভোজ আর পেটপুরে খাওয়াদাওয়া৷ বিশ্বকাপের মরসুম চলছে, তার মধ্যেই পড়েছে জামাই ষষ্ঠী। বাঙালির রীতি অনুযায়ী জামাই ষষ্ঠীতে সব জামাইরা শ্বশুরবাড়ি আসে৷ সঙ্গে আনেন শ্বশুর-শাশুড়ির জন্য নতুন জামাকাপড়৷ কিন্তু বাঙালী যেমন খেতে ভালবাসে তেমনি ফুটবল পাগল। তাই এই বছরের জামাইষষ্ঠীতে লেগেছে বিশ্বকাপের ছোঁয়া৷ ফুটবল প্রেমী সকল জামাইদের জন্য থাকছে খুশির খবর৷ ফুটবল প্রেমী জামাইরা পেতে পারে তাদের পছন্দের দলের পতাকা৷ তাও আবার একেবারে মিষ্টি রূপে৷ এই সুযোগকে হাতছাড়া করতে চাইছে না মিস্টান্ন ব্যবসায়ীরাও।

আজ্ঞে হ্যাঁ ঠিকই শুনেছেন৷ হুগলির শ্রীরামপুর শহরে একটি মিষ্টির দোকানে পাওয়া যাচ্ছে বিশ্বকাপের বিভিন্ন দলের পতাকার আদলে তৈরি মিষ্টি৷ আর্জেন্টিনা থেকে শুরু করে জার্মানি, ব্রাজিল থেকে শুরু করে পোর্তুগাল৷ সব দলেরই পতাকা মিষ্টি পাওয়া যাচ্ছে সেখানে৷ শ্রীরামপুর বটতলার এক মিস্টান্ন ব্যবসায়ী এই জামাইষষ্ঠীর মিস্টিতে বিশ্বকাপের ছোঁয়া দিয়েছেন।

ব্রাজিল,আর্জেন্টিনা থেকে পর্তুগাল বিভিন্ন দেশের পতাকার রঙে যেমন মিস্টি তৈরি হয়েছে, তেমনি মিস্টি ফুটবলও তৈরি হয়েছে। রকমারি এই মিষ্টির থালি মিলছে ১৭০ থেকে ১২০০ টাকার মধ্যে৷ মেয়ে, জামাই, বোন, ভগ্নিপতির জন্য অনেকে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন এই বিশ্বকাপ মিস্টি। চার বছর পর বিশ্বকাপ আসে। এবার ষষ্ঠী আর বিশ্বকাপ একসাথে হওয়ায় একটু অন্য রকম স্বাদ নিতে চাইছেন অনেকেই৷ সেই ছবিই ফুটে উঠেছে হুগলির শ্রীরামপুরে৷ জামাইষষ্ঠীর আনন্দের সঙ্গে বিশ্বকাপের উন্মাদনাকে মিলিয়ে দিতে চাইছেন অনেকেই৷ আর সেই কারণেই এমন মিষ্টির থালি তৈরি করে শ্রীরামপুরবাসীকে চমক দিয়েছেন ওই মিষ্টি দোকানের মালিক৷

Advertisement
----
-----