রেলের ‘স্পেশাল অফিসার’ হলেন হরমনপ্রীত

মুম্বই: বিশ্বকাপে এক ইনিংস খেলেই আসমুদ্র হিমাচল উত্তাল করে দিয়েছেন হরমনপ্রীত কউর৷ সেমি ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১৭১ মহাজাগতিক ইনিংস খেলে সারা ভারতের মন জয় করেছেন তিনি৷ বিশ্বকাপে দুরন্ত পারফরম্যান্সের জন্য পশ্চিম রেলের ‘অফিসার অন স্পেশাল ডিউটি’ পদে উন্নীত হলেন হরমনপ্রীত৷

আরও পড়ুন: এক ইনিংসেই আসমুদ্র হিমাচল উত্তাল করেছেন হরমনপ্রীত

এ’প্রসঙ্গে পশ্চিম রেলের এক মুখপাত্র বলেছেন,‘ সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপে দুরন্ত পারফরকম্যান্স করেছে হরমনপ্রীত৷ সেইজন্য রেলমন্ত্রক থেকে ওকে গ্রুপ ‘বি’ স্পেশাল অফিসার পদে ওকে উন্নীত করেছে৷’ চলতি মাসের সাত তারিখেই প্রোমোশন লেটার পেয়ে গিয়েছেন তিনি৷ পশ্চিম রেলের জেনারেল ম্যানেজার একে গুপ্তা বলেছেন,‘ হরমনপ্রীত সমস্ত খেলোয়াড়দের আদর্শ বিশেষ করে মহিলাদের’৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন: সচিনের চিঠিতেই রেলে চাকরি হরমনপ্রীতের

বছর আঠাশের পঞ্জাব তনয়া হরমনপ্রীত এর আগে চাকরি করতেন উত্তর রেলওয়েতে৷ ভারতীয় মহিলা দলের প্রাক্তন মহিলা অধিনায়ক ও অধুনা সিওএ-র (কমিটি অফ অ্যাডভাইজরি) সদস্য ডায়না এডুলজি চেয়েছিলেন হরমনপ্রীত উত্তর রেলওয়ের পরিবর্তে পশ্চিম রেলওয়েজে খেলুক৷ এডুলজি তাঁকে প্রতিশ্রুতি দেন যে, পশ্চিম রেলওয়েজে সে অনেক ভাল প্রস্তাবই পাবেন৷ গ্রুপ সি’তে শীর্ষ পদেই চাকরি করিয়ে দেন এডুলজি৷ রেলের চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলেই এডুলজি ব্যাপারটি স্থির করেন৷ এককথায় পঞ্জাব থেকে মুম্বইতে আসার জন্যই এডুলজি এটা করতে চেয়েছিলেন৷ কিন্তু রেলওয়েজের প্রেসিডেন্ট বিষয়টি খারিজ করে দেন৷ এডুলজি তখন বাধ্য হয়েই মাস্টারব্লাস্টার সচিন তেন্ডুলকরকে চিঠি লেখেন৷ এরপর ‘ক্রিকেট ঈশ্বর’ নিজে চিঠি পাঠান রেলওয়েজকে৷ এরপরই হরমনপ্রীতের চাকরির স্থান বদল হয়ে যায়৷

আরও পড়ুন: পঞ্জাব পুলিশের ডিএসপি হলেন হরমনপ্রীত

সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১৭১ রানের ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলে প্রচারের আলোয় আসেন হরমনপ্রীত৷ ভারতকে বিশ্বকাপ ফাইনালে তোলার ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নেন হরমনপ্রীত৷ ১১৫ বলের ইনিংসে ২০টি বাউন্ডারি ও ৭টি ছক্কা মেরে অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের তুলধোনা করেন পঞ্জাবের মেয়ে৷ ২০০৫-এর পর তাঁর ব্যাটেই ভর করেই বিশ্বকাপ ফাইনালে ওঠে ভারত৷ তবে ফাইনালে শেষ রক্ষা করতে পারেননি তাঁরা৷ ৯ রানে হেরে রানার্স হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় হরমনপ্রীতদের৷

আরও পড়ুন: এবার অর্জুন পূজারা-হরমনপ্রীত

Advertisement ---
---
-----