টিম ইন্ডিয়ায় বাঙালি কোচে ‘ভোট’ ঋদ্ধির

সুশান্ত মণ্ডল সিনিয়র স্পোর্টস রিপোর্টার kolkata24x7
সুশান্ত মণ্ডল
সিনিয়র স্পোর্টস রিপোর্টার
kolkata24x7

পাঁচ বছরের বেশি সময় টিম ইন্ডিয়ার ড্রেসিংরুম শেয়ার করছেন৷ কিন্তু, ম্যাচ খেলার বিশেষ সুযোগ হয়নি৷ ২০১০-এর ফেব্রুয়ারি, নাগপুরে টেস্ট অভিষেক থেকে এ পর্যন্ত মোট চারটি টেস্টে মাঠে নেমেছেন৷ কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনির টেস্ট অবসরে ভারতীয় দলে উইকেটের পিছনে ‘অটোমেটিক চয়েস’ ঋদ্ধিমান সাহা৷ সিডনি টেস্টের পর আসন্ন বাংলাদেশ সফরে সিরিজের একমাত্র টেস্টে টিম ইন্ডিয়া উইকেটরক্ষকের ভুমিকা দেখা যাবে এই বাঙালিকে৷ এই প্রথম কোনও সফরে নিশ্চিত মাঠে নামার লক্ষ্যে কিট ব্যাগ গোছাবেন ঋদ্ধি৷ আসন্ন বাংলাদেশ সফর থেকে টিম ইন্ডিয়ার ভাবি কোচ… এ সব নিয়েই সুশান্ত মণ্ডলের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় টিম ইন্ডিয়ায় ধোনির উত্তরসূরি৷

প্রশ্ন: পাঁচ বছরে মাত্র চারটি টেস্ট! কীভাবে নিজেকে মোটিভেট করেন?
ঋদ্ধিমান: যা আমার হাতে নেই, তা নিয়ে বেশি ভাবি না৷ চেষ্টা করি সুযোগ পেলে তা কাজে লাগাতে৷

প্রশ্ন: এই প্রথম কোনও সফরে যাওয়ার আগে খেলার ব্যাপারে নিশ্চিত হলেন৷ বাড়তি মোটিভেশনের কাজ করবে?
ঋদ্ধিমান: কিছুটা হলেও নিজেকে মোটিভেট করতে সুবিধা হবে৷ তবে আসল কাজটা হল মাঠে৷ আমার পারফরম্যান্সই কথা বলবে৷

প্রশ্ন: টেস্টে দলে নিয়মিত সদস্য হওয়ায় প্রত্যাশার চাপ বাড়ল না?
ঋদ্ধিমান: আমি সে রকম মনে করি না৷ কারণ দেশের হয়ে খেলতে নামলেই প্রত্যাশার চাপ থাকবে৷ এটা মনে করে মাঠে নামলে পারফর্ম করা কঠিন হয়ে যাবে৷ ন্যাচারাল গেমটা খেলতে পারব না৷

 ‘‘মহারাজদা কোচ হলে দারুণ হয়৷ ক্রিকেট সম্পর্কে দাদির (সৌরভ) অসাধারণ জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে৷ ব্যক্তিগত ভাবে বলতে পারি আমার সুবিধা হবে৷ ছোটবেলা থেকে দাদি-র সঙ্গে খেলেছি৷ সুবিধা-অসুবিধাগুলো বুঝতে পারবে৷ শুধু আমার কাছে নয়৷ সৌরভ দলের কাছেই গ্রহণযোগ্য হবে৷’’Australia v India - 4th Test: Day 2

- Advertisement -

প্রশ্ন: টেস্ট অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেছেন ঋদ্ধি ভারতীয় দলের সম্পদ৷ আগামী পাঁচ-সাত বছর চুটিয়ে খেলতে পারে৷ কী বলবেন?
ঋদ্ধিমান: অধিনায়ক এ রকম বললে বাড়তি মোটিভেশন পাওয়া যায়৷ চেষ্টা করব অধিনায়কের আস্থার পূর্ণ মর্যাদা দিতে৷

প্রশ্ন: অবসরের পর ধোনি ব্যক্তিগত ভাবে কিছু বলেছিলেন?
ঋদ্ধিমান: বিশেষ কিছু নয়৷ তবে বলেছিল এবার তোমার দায়িত্ব বেড়ে গেল৷ ভালো করে খেলে যাও৷

প্রশ্ন: টেস্টে হলেও ওয়ান ডে-তে আপনার পথ এখনও মসৃণ নয়৷ আরও কতদিন অপেক্ষা করতে হবে?
ঋদ্ধিমান: মনে হয় না আগামী দু’ বছরে অপেক্ষার অবসান হবে বলে৷ আমার ব্যক্তিগত ধারণা এখনও ধোনি দু’ বছর খেলবে৷ তবে আমি এ সব নিয়ে ভাবছি না৷ নির্বাচকরা যদি মনে করে আমি ওয়ান ডে খেলার যোগ্য তবে সুযোগ দেবে৷

প্রশ্ন: মানে, আইপিএল-এ একের পর এক বিস্ফোরক ইনিংস খেলার পরও নিজেকে ওয়ান ডে খেলার যোগ্য মনে করেন না?
ঋদ্ধিমান: আমার মনে করার সঙ্গে কী-ইবা এসে যায়৷ আমি তো চাই দেশের হয়ে তিনটি ফর্ম্যাটেই খেলতে৷ কিন্তু সুযোগ পেলে তো!

প্রশ্ন: চারটি টেস্ট খেললেও এই প্রথমবার হরভজন সিং-কে কিপিং করতে চলেছেন৷ কোনও বিশেষ পরিকল্পনা?
ঋদ্ধিমান: সে রকম কিছু নয়৷ তবে ভাজ্জির মতো স্পিনারকে কিপিং করার জন্য মুখিয়ে রয়েছি৷ এখনও পর্যন্ত ম্যাচে হরভজনের বল কিপিং করিনি৷ অনেক দিন আগে বেঙ্গালুরুর ক্যাম্পে ভাজ্জিকে কিপিং করেছিলাম৷ অনুশীলনে একটু দেখে নেব৷

প্রশ্ন: ক্যারাম বল, নাকাল ডেলিভারি এ সবের জন্য ইদানিং স্পিনারদের কিপিং করা আগের থেকে কি কঠিন হয়েছে?
ঋদ্ধিমান: হতে পারে! অনেকে অ্যাকশন ডেলিভারি দেখে বল ধরে৷ আমি চেষ্টা করি শেষ পর্যন্ত বলটা দেখতে৷ সুতরাং ব্যাটসম্যান মিস করলে তৎক্ষণাত বল ধরতে সুবিধা হয়৷

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সফরের জন্য কোনও বিশেষ প্রস্তুতি?
ঋদ্ধিমান: ম্যাচের মধ্যে থাকলে আলাদা প্রস্তুতির প্রয়োজন হয় না৷ আইপিএল-এর পর ক্লাবের হয়ে ম্যাচ খেলছি৷ ম্যাচের মধ্যে থাকলে বিশেষ প্রস্তুতির প্রযোজন হয় না৷ বাংলাদেশের আবহাওয়া ও পিচ অনেকটা এখানকার মতো৷ সুতরাং কোনও অসুবিধা হবে বলে মনে হয় না৷ এছাড়া ওখানে আগে ওয়ান ডে সিরিজ খেলেছি৷

প্রশ্ন: টিম ইন্ডিয়ার নতুন কোচ নিয়ে আপনার মতামত?
ঋদ্ধিমান: এ নিয়ে সিনিয়ররা মতামত দেবে৷ তবে আমি বলতে পারি, বাঙালি কোচ হলে ভালো হয়৷ কোচের সঙ্গে বাংলায় কথা বলতে পারব৷

প্রশ্ন: মানে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়?
ঋদ্ধিমান: হ্যাঁ৷ মহারাজদা কোচ হলে দারুণ হয়৷ ক্রিকেট সম্পর্কে দাদির (সৌরভ) অসাধারণ জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে৷ ব্যক্তিগত ভাবে বলতে পারি আমার সুবিধা হবে৷ ছোটবেলা থেকে দাদি-র সঙ্গে খেলেছি৷ সুবিধা-অসুবিধাগুলো বুঝতে পারবে৷ শুধু আমার কাছে নয়৷ সৌরভ দলের কাছেই গ্রহণযোগ্য হবে৷

প্রশ্ন: আইপিএল খেলে এসেই আবার ক্লাব ক্রিকেটে মাঠে নেমে পড়লেন৷ বিশ্রামের প্রয়োজন হয় না৷
ঋদ্ধিমান: বিশ্রাম নেওয়ার জন্য বাকি জীবন তো পড়ে রয়েছে৷ কোনও সফরের আগে ম্যাচ প্র্যাকটিসের মধ্যে থাকলে আরও ভালো হয়৷

প্রশ্ন: প্রতিপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশকে কীভাবে দেখছেন?
ঋদ্ধিমান: বাংলাদেশ সম্প্রতি দারুণ উন্নতি করেছে৷ সদ্য ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ হারলেও লড়াই করেছে৷ ওয়ান ডে সিরিজে পাকিস্তানকে ‘হোয়াইটওয়াশ’ করেছে৷ ওদের দলে ভালো স্পিনার রয়েছে৷ তবে আমরা অস্ট্রেলিয়ায় টেস্ট সিরিজ হারলেও ভালো খেলেছিলাম৷

Advertisement
---