ইয়েমেন: আরব জোট সেনার আক্রমণে নিহত বহ শিশু

সানা: আরব জোট সেনার বিমান হানায় অন্তত ২২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে৷ ফের এমনই অভিযোগ উঠল৷ নির্বাচিত সরকারকে সরিয়ে ইয়েমেনের ক্ষমতা দখলকারী হুথি গোষ্ঠীর দাবি, আরবের হামলায় মারা গিয়েছে ৩০ জন, এদের মধ্যে বাইশ জন শিশু৷ এই ঘটনা দেশের উত্তরাঞ্চলে৷ হুথি বিদ্রোহী গোষ্ঠীর বিবৃতি উদ্ধৃত করে সিএনএন, আলজাজিরা সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে এই খবর জানাচ্ছে৷ সম্প্রতি ইয়েমেনে আরব জোট সেনার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় বেশ কয়েকজন শিশুর মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছিল৷

মার্কিন সংবাদ মাধ্যম সিএনএন হুথি নিয়ন্ত্রিত ইয়েমেনের স্বাস্থ্য বিভাগের বার্তা প্রকাশ করেছে৷ রিপোর্টে বলা হয়েছে, হুথিরা হামলার কথা জানালেও নিহতদের পরিচয় প্রকাশ করেনি৷ বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার লোহিত সাগর তীরবর্তী আল দুরাইহামিতে হামলা চালিয়েছিল সৌদি আরব নেতৃত্বাধীন আরব জোটের বিমান বাহিনী৷ এই শহরটি সংঘর্ষ কবলিত হুদাইদা থেকে কুড়ি কিলোমিটার দূরে৷ সম্প্রতি হুদাইদা এলাকায় তীব্র সংঘর্ষ হয় দু পক্ষের৷

ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হয় ২০১৫ সাল থেকে৷ দেশটির সরকারের প্রধান মনসুর আল হাদিকে ক্ষমতা থেকে উচ্ছেদ করে বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথি৷ তারপর মনসুর হাদি পালিয়ে সৌদি আরবে রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়েছিলেন৷ তাঁকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসে আরব, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী সহ বিভিন্ন দেশে৷ সেই জোট সেনার অনবরত হামলা চলছে হুথিদের উপরে৷ সেই আক্রমণে ইয়েমেনের রাজধানী সানা বিধ্বস্ত৷

- Advertisement -

এদিকে নির্বাসিত প্রেসিডেন্ট মনসুর হাদি পরে আরব জোট সেনার মদতে এডেন বন্দর শহর পুনরায় দখল করেন৷ তাঁর অনুগত সেনার সাহায্যে হুথিদের বিরুদ্ধে লড়াই চালাচ্ছেন৷ বিখ্যাত এডেন বন্দর হাতছাড়া হয়েছে হুথিদের৷ অন্যদিকে মনসুর হাদিকে সাহায্য করতে আরব জোটের সেনা লাগাতার আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে৷

ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে হুথিদের সমর্থন করছে শিয়াপন্থী ইরান সরকার৷ আরা তাদের বিরোধিতায় সামিল সুন্নিপন্থী সৌদি আরব, মিশর, আমিরশাহী সহ বিভিন্ন মুসলিম রাষ্ট্র৷ ফলে মুসলিম দুনিয়ায় আড়াআড়ি ফাটল বেড়েই চলেছে৷

Advertisement
-----