যোগা বৃহত্তম গণ আন্দোলন হয়ে উঠেছে: মোদী

দেরাদুন: মানুষ যত প্রযুক্তি নির্ভর হচ্ছে ততই জীবনে বাড়ছে যোগের গুরুত্ব৷ ধীরে ধীরে ভারতের এই প্রাচীন যোগচর্চা ক্রমশই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে বিশ্বের কাছে৷ প্রতি বছরই বেড়ে চলেছে যোগ দিবসের ব্যাপ্তি৷ আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উপলক্ষ্যে দেরাদুনের ফরেস্ট রিসার্চ ইনস্টিটিউটের হাজার মানুষের জমায়েতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাষণেও উঠে আসে সেই যোগ ব্যায়ামের আন্তর্জাতিক ব্যাপ্তির কথা৷

মোদী জানান, গোটা বিশ্ব যোগাকে আপন করে নিয়েছে৷ প্রতি বছর যোগা দিবস পালনের বহর দেখে তা পরিস্কার৷ তিনি বলেন, ‘‘দেরাদুন থেকে দুবলিন, সাংহাই থেকে শিকাগো, জাকার্তা থেকে জোহানেসবার্গ সবাই যোগ ব্যায়ামে মজে৷ গোটা বিশ্বকে একসূত্রে বেধে রেখেছে যোগা৷’’

প্রতিযোগিতায় টিঁকে থাকার লড়াইয়ে স্ট্রেস, মানসিক ও শারীরিক সমস্যা ভয়াবহ জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে তখন ২০১৪-র ২১ জুন বিশ্ব যোগ দিবস ঘোষণা করে রাষ্ট্রপুঞ্জ। এ দিন মোদী বলেন, যোগা মানুষকে শান্তির খোঁজ দেয়৷ আজকের দ্রুত পরিবর্তনের যুগে যোগা শরীর, মস্তিস্ক ও আত্মাকে একসূত্রে বেধে রাখে৷ সুস্বাস্থ্য ও ভালো থাকার জন্য যোগা এখন অন্যতম গণ আন্দোলনে পরিণত হয়েছে৷

যোগার বিশেষত্ব হল, এটি প্রাচীন কিন্তু আধুনিক৷ ভবিষ্যত দিশার আলো লুকিয়ে যোগায়৷ যোগার মাধ্যমে যে কোনও সমস্যার মোকাবিলা করে তার সমাধান সম্ভব৷ সেটা ব্যক্তিবিশেষেও হতে পারে কিংবা সমষ্টিগতভাবে৷

যোগাসনকে বরাবার গুরুত্ব দিয়ে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি নিজেও যোগাভ্যাসের মধ্যে থাকেন৷ বুধবার দেরাদুনে এসে তিনি জানান, যোগাসন আসলে মানুষের স্বাস্থ্যবিমা ৷ যোগাসন অভ্যাস দিনের শুরুকে ইতিবাচক করে৷ দেরাদুনে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিভেন্দ্র সিং রাওয়াত৷ সোশ্যাল সাইটেও দেখা যাবে প্রধানমন্ত্রীর যোগাসনের লাইভ৷ মানুষকে যোগাসনে উৎসাহ করতে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে প্রচেষ্টা জারি রয়েছে৷

প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি, কোটায় যোগ দিবস পালন করবেন যোগ গুরু রামদেব৷ মুম্বইয়ে যোগ দিবস পালন করবেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নাইডু, সহ অন্যান্য মন্ত্রীরা৷ যোগদিবস পালন করতে ইতিমধ্যেই লখনউয়ে পৌঁছে গেছেন রাজনাথ সিং৷ যোগ দিবসে পিছিয়ে নেই গর্ভবতী মহিলারাও৷ দিল্লিতে গর্ভবতী মহিলাদের জন্য আয়োজিত যোগাসনে যোগ দেবেন মেনকা গান্ধী৷

Advertisement
----
-----