পুরীতে ‘মহাপ্রভু’র নামে প্রতারণা করে গ্রেফতার যুবক

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মহাপ্রভুর সঙ্গে প্রতারণা ! তাও আবার নীলাচলের মাটিতে!! এও কি হতে পারে ? তাই হয়েছে৷ পুরীতেই প্রতারণার এমন কাজে চমকে যাচ্ছেন পুলিশকর্তারা৷ ভ্রমণ পিপাসু বাঙ্গালি হোটেল বুকিং করে প্রতারণার শিকার হয়েছেন৷ এটা নতুন ঘটনা নয়৷ এবার একেবারে অভিনব কায়দায় প্রতারকরা প্রতারণা করেন৷ এভাবে বহু পর্যটকদের কাছ থেকে প্রচুর টাকা হাতিয়ে নিয়েছে৷ যদিও শেষ পর্যন্ত সাইবার ক্রাইম পুলিশের হাতে গ্রেফতার এক প্রতারক যুবক৷ তাকে মঙ্গলবার বিধাননগর আদালতে তোলা হয়৷ যে হোটেলের নামে টাকা হাতানো হয়েছে সেটি মহাপ্রভু নামে সুপরিচিত৷

কী ভাবে প্রতারণা ?
রথযাত্রার সময় পুরীর ওই হোটেল কর্তৃপক্ষ গুগলে বিজ্ঞাপন দেন৷ হোটেল বুকিং করার জন্য দেওয়া হয় মোবাইল নম্বর ও ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর৷ প্রতারকরা সেই বিজ্ঞাপন হ্যাক করে সেখানে তাদের মোবাইল নম্বর ও ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর বসিয়ে দেয়৷ যা পর্যটকদের পক্ষে বোঝা অসম্ভব৷ পুলিশ সূত্রে খবর ,এভাবে বহু পর্যটকদের কাছ থেকে একটি প্রতারক দল হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে৷

যেভাবে ফাঁস হল
এয়ারপোর্ট থানার লালকুঠির বাসিন্দা সৌমিত্র চক্রবর্তী গুগল সার্চ করে পুরীর মহাপ্রভু হোটেল বুকিং করেন৷ টাকা দেওয়ার পর বুকিং রসিদও হাতে পান৷ বুকিং তারিখে

পুরীর ওই হোটেলে গিয়ে জানতে পারেন তাদের নামে কোনও ঘর বুকিং নেই৷ হোটেল কর্তৃপক্ষকে বুকিং রসিদ দেখানো হয়৷ তখনই কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেয় এটা জাল রসিদ৷ এরপর সৌমিত্র দিশেহারা হয়ে পড়েন৷ অভিযোগ জানানো হয় পুলিশকে৷ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নামে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ৷ অবশেষে কয়েক মাস পরে আলিপুরদুয়ার এগারহাত কালিবাড়ি থেকে দেবজিৎ দে

নামে এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ তার কাছ থেকে মোবাইল ফোন এবং ব্যাংক সংক্রান্ত নথিপত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়৷ এর সঙ্গে বড় কোনও চক্র জড়িত কিনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷