প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: এটিএম কার্ডের পিন জেনে ফের প্রতারণার ঘটনা ঘটল শহরে৷ সরকারি সংস্থার এক প্রাক্তন কর্মীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে প্রায় ৫০ হাজার টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগে রাজা মোহরা (২০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ৷

তার কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে মোবাইল ও প্রতারণায় ব্যবহৃত গেজেট৷ তবে বার বার এই ঘটনায় দেখা গিয়েছে বয়স্কদেরকেই প্রতারকরা টার্গেট করে৷ অভিযুক্ত রাজাকে বৃহস্পতিবার বিধাননগর মহকুমা আদালতে তোলা হয়৷ বিচারক তাকে চার দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেয়৷

পড়ুন: সাবধান: নতুন এটিএমের চক্করেই খোয়া গেল চার লক্ষ টাকা

একটি রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাংকের ম্যানেজার পরিচয় দিয়ে প্রতারণা৷ সরকারি সংস্থার প্রাক্তন কর্মী ও ডানকুনির বাসিন্দা ব্যক্তিগত কাজে সল্টলেকে এসেছিলেন৷ সেই সময় তার কাছে একটি অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন আসে৷ একটি রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যাঙ্কের ম্যানেজার পরিচয় দিয়ে ডানকুনির ওই বাসিন্দার কাছ থেকে তার এটিএম কার্ডের পিন নম্বর জেনে নেয়৷ তার পরেই ওই কর্মীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ৪৯ হাজার ৯৭৯ টাকা তুলে নেওয়া হয়৷

এরপর ওই অবসর প্রাপ্ত কর্মী বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ করেন৷ পুলিশ তদন্তে নেমে বীরভূম থেকে সেখানকার বাসিন্দা রাজা মোহরাকে গ্রেফতার করে৷ তার কাছ থেকে প্রতারণায় ব্যবহৃত গেজেট ও মোবাইল উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ আর কেউ এর সঙ্গে জড়িত আছে কিনা, তাছাড়া আর কোনও ব্যক্তির সঙ্গে প্রতারণা করেছে কিনা, চলবে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদ৷  ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ৷

পড়ুন: এটিএম কার্ড ছাড়াই এবার পেমেন্ট করতে পারবেন ব্যাংকের গ্রাহকেরা

এই ধরনের এটিএম প্রতারণার ঘটনা ভুরিভুরি৷ তবে, এর জন্য বেশিরভাগ সময়ই দায়ী করা হয়েছে আধুনিক প্রযুক্তি অথবা মানুষের অসতর্কতাকে৷ তথ্য জানাচ্ছে, সারা দেশ জুড়ে এটিএম থেকে প্রতারিত হওয়া মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়৷ সম্প্রতি, দিল্লির এক দম্পতি এটিএম প্রতারণার শিকার হয়েছেন৷ তাঁরা জানিয়েছেন, ‘পর পর পাঁচটি ম্যাসেজ ফোনে আসে৷ যেখানে বলা হয় ৫০,০০০ টাকা তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে তুলে নিয়েছেন৷ অথচ তাঁরা নিজেরা টাকা তুলেননি৷

--
----
--